পিছু হটল বিজয়ন সরকার, এখনই ‘বিতর্কিত’ পুলিশ আইন কার্যকর নয়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তীব্র বিতর্কের মুখে পিছু হটল কেরলের বাম সরকার। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, এখনই সংশোধিত কেরল পুলিশ আইন (২০১১) কার্যকর করা হবে না। বিধানসভা অধিবেশনে আলোচনা করে আইন কার্যকর করার বিষয়ে এগোনো হবে।

রবিবার কেরলের রাজনীতিতে তোলপাড় পড়ে গিয়েছিল। পিনারাই বিজয়ন সরকার একটি অধ্যাদেশ জারি করে জানিয়েছিল, কেরল পুলিশ আইন সংশোধিত করা হয়েছে। কিন্তু তার যা বিষয়বস্তু তা নিয়েই ব্যাপক বিতর্ক তৈরি হয়। সংশোধিত আইনে বলা হয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ যদি আপত্তিকর পোস্ট করেন তাহলে তাঁর পাঁচ বছরের জেল পর্যন্ত হতে পারে। হতে পারে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা। সেখানে আরও বলা হয়, কোনও পোস্ট সম্পর্কে যে কেউ মামলা করতে পারেন। এমনকি পুলিশও স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা করতে পারে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

এরপরই শুরু হয় প্রতিবাদ। অনেকেই বলেন, এ তো এক রকমের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ। কোনও কোনও মহল থেকে এও বলা হয়, সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতাতেও হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা হতে পারে এই আইন কার্যকরী হলে। বহু প্রগতিশীলও এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরব হন।

বামপন্থীদের মধ্যেও বিভ্রান্তি তৈরি হয়। অনেক বাম নেতাই ঘরোয়া আলোচনায় বলেন, কাল যদি এই আইন উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথ সরকার বা মধ্যপ্রদেশে শিবরাজ সিং চৌহান সরকার আনে তাহলে আর প্রতিবাদ করার মুখ থাকবে না। তা ছাড়া বিধানসভায় আলোচনা ছাড়াই অর্ডিন্যান্স জারি করে এই ধরনের স্পর্শকাতর বিষয়ে আইন করা নিয়েও বিতর্ক তৈরি হয়। সমালোচকদের অনেকে বলেন, এই হচ্ছে সিপিএমের দ্বিচারিতা। সংসদকে এড়িয়ে যখন কেন্দ্র অধ্যাদেশ এনে কৃষি আইন চালু করল তখন সীতারাম ইয়েচুরিরাই বলেছিলেন মোদী সরকার গণতন্ত্রকে ভয় পায়। তাই সংসদ ভবনকে বাইপাস করে রাতের অন্ধকারে আইন করেছে। ঠিক একই কাজ করেছে কেরল সরকার।

পর্যবেক্ষকদের মতে, তরুণ প্রজন্ম যে ভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় কেরল সরকারের সমালোচনা শুরু করেছিল তাতে কার্যত পিছু হটতে বাধ্য হতে হল। যদিও এক সিপিএম নেতার কথায়, এটাই গণতন্ত্র। মানুষ যদি কোনও কিছুতে প্রতিবাদ জানায়, সরকারের কাজ সেটা শোনা। সংখ্যার গরম দেখিয়ে জোর করে চাপিয়ে দেওয়া নয়। তাই অধ্যাদেশ নিয়ে মোদী সরকারের সঙ্গে কেরল সরকারের যে তুলনা হচ্ছে তার কোনও মানে নেই।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More