বোকাদের পৃথিবী

পৃথ্বী বসু

১.

গাছের একটা পাতা
ঝরে গিয়ে

শুধুই হাওয়ায় ভাসছে…

আর এই দৃশ্যের নির্মমতা টের পাচ্ছে
একটা বোকা লোক–

শ্রাদ্ধের কার্ডে ছাপা ওই ছবিটাই
যখন চোখের সামনে বারবার ভেসে উঠছে তার

২.

মাকড়সার মতো লালা হোক–
আমরাও তো চেয়েছিলাম একদিন

জাল বুনতে চেয়ে সেই অপচেষ্টা মনে পড়ে যায়

আমাদের যুবাকালের লালা
গড়িয়ে গড়িয়ে সব চলে গেল
ঘুমের ভিতরে

আমাকে না বলে, সবই
স্বপ্নের ভিতরে গেল গড়িয়ে গড়িয়ে

একদিন…

৩.

দুটো বিপরীত ট্রেন,
প্রেমিক-প্রেমিকা

যেদিন দু-জনই ভাবে
স্থিরতা এসেছে

সেই থেকে শুরু হয়
ধাপে ধাপে, দূরে চলে যাওয়া…

৪.

এই যে তোমার সঙ্গে একটু একটু সম্পর্ক তৈরি হল

তোমাকে আমার ফুলগাছ মনে হচ্ছে
তোমার প্রতিটা কথা মনে হচ্ছে ফুল

কী ভীষণ ভালো লাগে, সমস্ত কথা নিয়ে
তুমি যখন সামনে এসে দাঁড়াও

একদিন ঝরে যাবে বলে

৫.

যতবার তোমাকে বলেছি
ততবারই হেসে তুমি উড়িয়ে দিয়েছ,
আর
কখনোই বিশ্বাস করোনি

অনেক রাতের দিকে ছাদে গেলে দেখা যায়
সারসার জোনাকিরা আকাশের গায়ে মরে আছে

 

জন্ম: ১৯৯৬, ১লা জুলাই। বর্তমানে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তর, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। নেশা: আড্ডা, রাস্তায় এলোমেলো ঘুরে বেড়ানো, ঘুমোনো আর পুরোনো লিটিল ম্যাগাজিন ঘাঁটা। ‘দশমিক’ নামে ছোটো কাগজের সম্পাদক। একটিই পাতলা কবিতার বই: ‘খইয়ের ভিতরে ওড়ে শোক’।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More