স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ত্বক পেতে নিয়মিত রূপচর্চার পাশাপাশি এই ৫টি অভ্যাস আজ থেকেই শুরু করুন

দ্য ওয়াল ব্যুরো নিজের ত্বক নিয়ে চিন্তিত থাকলে, প্রথমেই ত্বকের ধরণ বোঝাটা জরুরি। তারপর ক্লিনজার, টোনার, ক্রিম বেছে নিয়মিত একটা রুটিন মেন্টেন করা দরকার। এর পাশাপাশি প্রত্যেকের ত্বকেই বেশ কিছু সমস্যা থাকে। যেমন ব্রণ, দাগছোপ, ব্রেক আউটস। এমনটা হতে পারে, প্রতিদিনের ব্যবহৃত জিনিসগুলোর মধ্যে এমন কিছু উপাদান আছে, যা আপনার ত্বকের জন্য ক্ষতিকারক। ফলে না জেনে-বুঝে কোনও প্রোডাক্ট দীর্ঘদিন ব্যবহার করার ফলে ত্বক মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়ছে। তাই সতর্ক হোন, আর‌ জেনে নিন ব্রণ, দাগছোপের সমস্যা থেকে কীভাবে মুক্তি পাবেন।

ঝকঝকে ত্বক পেতে চার পাঁচটি জিনিস অবশ্যই মাথায় রাখুন-

১.  প্রথমেই প্রচুর জল খাওয়া অভ্যাস করুন। দিনে অন্তত ৮ গ্লাস। এছাড়াও রোজকার ডায়েটে ফল, সবজি ইত্যাদি রাখাটা জরুরি। ট্রেস কমান।‌ মন খুশি থাকলে শরীর এমনিতেই ফিট থাকে। নিয়মিত এক্সারসাইজ বা মেডিটেশন করুন। এতে শরীরে রক্ত চলাচল বাড়ে। ত্বকের ধরন বুঝে সঠিক পদ্ধতিতে নিয়মিত রূপচর্চা করুন।

২. যেসব ফল, সবজিতে প্রচুর পরিমাণে জল থাকে, সেগুলো খাওয়া অভ্যাস করুন। এতে ত্বক প্রাকৃতিক উপায়ে হাইড্রেটেড থাকে। যেমন শশা, লাউ, তরমুজ, আপেল, আঙুর। সূর্যরশ্মির প্রভাবে ত্বক যেটুকু ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তার হাত থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে এই ধরনের ফল।

৩. ত্বক চর্চার সেরা সময় রাত। কিন্তু অনেকেই ঠিক মতো মেন্টেন করেন না। ত্বকের ধরন বুঝে ভাল নাইট ক্রিম ব্যবহার করা খুবই জরুরি। ঘুমানোর সময় আপনার শরীরের মতো ত্বকও বিশ্রাম নেয়। সঠিক প্রোডাক্ট ব্যবহার করলে তা সারারাত ধরে কাজ করে। যার ফলে ত্বক ঝকঝকে, উজ্জ্বল দেখায়।

৪. ছোট ছোট কিছু অভ্যাস বদলে ফেলুন। যেমন অনেকেই আছেন যাঁরা দীর্ঘক্ষণ ল্যাপটপ বা বড় কোনও স্ক্রিনের সামনে বসে কাজ করেন। তাঁরা বিশেষ ধরনের চশমা ব্যবহার করুন। আবার অনেকেই সারাক্ষণ ফোন ঘাঁটতে থাকেন। তাঁরাও কিছুটা সময় এই ডিভাইস থেকে দূরে থাকুন। নিজেকে খানিকটা বিশ্রাম দিন।

৫. প্রোডাক্ট নিয়ে অনেকেই পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন। কিন্তু কোন ধরনের উপাদানযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার করা উচিত সেটা অনেকে বুঝে উঠতে পারেন না। আসুন জেনে নিই, কোন ত্বকের জন্য কেমন প্রোডাক্ট ব্যবহার করবেন  –

ব্রণযুক্ত ত্বকের জন্য – স্যালিসাইলিক অ্যাসিডযুক্ত ক্লিনজার এবং ট্রিটমেন্ট।

ত্বকে পিগমেন্টেশন বা দাগ ছোপ থাকলে- ভিটামিন সি।

ফ্যাকাসে ত্বক হলে – রেটিনল এবং আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড

চোখের তলায় ডার্ক সার্কেল থাকলে – ভিটামিন সি এবং ক্যাফেইন

বলিরেখা থাকলে – বেশি মাত্রার হাউলোরনিক অ্যাসিড যুক্ত প্রোডাক্ট এবং রেটিনল

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More