সৌরভের আইএসএল প্রোমো দেখে ক্ষিপ্ত মোহনবাগান সমর্থকরা, উঠছে ‘এটিকে’ বয়কটের ডাক

 

দ্য ওয়াল ব্যুরো : আইএসএলের একটি প্রোমো ঘিরে মোহনবাগান সমর্থকরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছেন। আইএসএলের অফিসিয়াল ইউ টিউব পেজ থেকে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে দিয়ে একটি প্রোমো করানো হয়েছে। সেখানকার কিছু বিষয় নিয়ে সবুজ মেরুন সমর্থকদের আবেগকে ধাক্কা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে।
ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সৌরভ বলছেন ছয় বছর আগে এই বাংলার মাটিতে শুরু হয়েছিল দুটি দলের আবেগের লড়াই। সবুজ মেরুন সমর্থকদের বক্তব্য, কীভাবে ভারতের একজন নামী আইকন একটি টুর্নামেন্টের প্রোমো হিসেবে এই কথাটি বলতে পারেন? কিসের ভিত্তিতে তিনি বলছেন ছয় বছর আগে শুরু হয়েছে মোহনবাগানের আবেগ?
যে ক্লাবটির জন্ম ১৮৮৯ সালে, যারা ১৯১১ সালে আইএফএ শিল্ড ফাইনালে ব্রিটিশ ইস্ট ইয়র্ককে হারিয়ে রক্তক্ষয়ী লড়াই জিতে দেশবাসীকে গৌরবান্বিত করেছিল, তাদের কোন আবেগ ছয়বছর আগেকার? সেটাই জানতে চেয়েছেন সবুজ মেরুন সমর্থকরা।


তার থেকেও বড় কথা, ওই ভিডিওটা পাঁচ ঘন্টায় দেখেছেন ৩৭ হাজার মানুষ, কিন্তু ডিসলাইক করেছেন প্রায় সাড়ে তিন হাজার মানুষ। লাইক তার থেকে একটু বেশি হলেও সমর্থকদের একাংশ মনে করছেন, না দেখেই হয়তো ওই ভিডিওতে সবাই লাইক দিচ্ছেন, কিন্তু ভিডিওটা দেখলে ডিস লাইকের সংখ্যাই বাড়বে বলে ধারণা।
শুধু তাই নয়, এই ভিডিও দেখে অনেক সমর্থকই সৌরভের নামে বিরূপ মন্তব্য করেছেন। অনেকে তাঁকে পদলোভী বলে চিহ্নিত করেছেন। এই নিয়ে মোহনবাগানের অন্যতম ডিরেক্টর তথা অর্থসচিব দেবাশিস দত্ত পালটা একটি টুইট করেছেন, তাতে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমরা এটিকে-মোহনবাগান ক্লাবের পক্ষ থেকে জানাতে পারি আমাদের ক্লাবের সদস্য-সমর্থকদের সম্মান যাতে অক্ষুন্ন থাকে, সেদিকে আমরা নজর রাখব। ক্লাব ম্যানেজমেন্টও বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে দেখবে।’’
এই বিবৃতির মাধ্যমে পরিষ্কার যে এই প্রোমোতে ক্লাবের মর্যাদা ক্ষুন্ন হয়েছে। শুধু তাই নয়, ওই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে এটিকে ও মোহনবাগানের জার্সি ওয়াশিং মেশিনে চোবানো হচ্ছে। সেই দেখে লাল হলুদ সমর্থকদের একাংশ বলতে শুরু করেছেন, এতদিনে বোঝা গিয়েছে ওয়াশিং মেশিনেই মনে হয় দুই ক্লাবের জন্ম! এমনকি ওই ভিডিওতে ইস্টবেঙ্গলের উপস্থিতিও দেখানো হয়েছে, এতেও চটেছেন সমর্থকরা। তাদের বক্তব্য, ইস্টবেঙ্গলকে না দেখিয়েও মোহনবাগান ক্লাবের গরিমা আদৌ কমত না।
এটিকে-মোহনবাগান ক্লাবের সংযুক্তিকরণের পরে থেকেই একটা ক্ষোভ ছিল সবুজ মেরুন সমর্থকদের। তাঁরা বলে এসেছেন, এতে করে মোহনবাগান ক্লাবের সেই গরিমা আর থাকল না। তারা ক্লাবটিকে বেচে দিল অন্যের কাছে। এই নিয়ে ক্লাব কর্তাদের বক্তব্য ছিল অন্য। তাঁদের মন্তব্য, এইভাবেই সারা বিশ্বে কর্পোরেট সংস্কৃতিতে ক্লাবগুলি চলছে। এমনভাবে সংযুক্তি না হলে একদিন ক্লাবের সেই আর্থিক প্রতুলতা থাকবে না।
মোহনবাগান সমর্থকদের বড় অংশের ক্ষোভ, আইএসএলে ফ্রাঞ্চাইজির নামের আগে কেন মোহনবাগানের আগে এটিকে বসবে? তাদের বক্তব্য, মোহনবাগান ক্লাবের নাম ভাঙিয়ে যেহেতু এটিকে কর্তারা ব্যবসা করবেন, তাই মোহনবাগান নামটিকেই ব্র্যান্ড হিসেবে তুলে ধরা উচিত ছিল। তাই মোহনবাগান সমর্থকদের বিভিন্ন গ্রুপ থেকে এটিকে বয়কটের ডাক উঠছে।
আগামী ২০ নভেম্বর থেকে আইএসএল শুরু হবে। প্রথমদিনই খেলবে এটিকে-মোহনবাগান ও কেরালা ব্লাস্টার্স। প্রথমেই ভিকুনার দলের মুখোমুখি হবে সবুজ মেরুন ক্লাব। তার আগে প্রোমো ভিডিও দেখে সমর্থকদের রোষানল বড় প্রতিবাদের সামনে দাঁড় করাতে পারে। তারা জানিয়ে রেখেছে, মোহনবাগানের আগে এটিকে নামটিকে তুলে দিতে হবে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More