উত্তরপ্রদেশ কি পাকিস্তানে? বিরোধী নেতাদের লখিমপুর যাত্রা থামানোয় যোগীকে তোপ শিবসেনার

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: খেরি লখিমপুরে (lakhimpur kheri) গাড়ির তলায় পিষে কৃষক মৃত্যুর ঘটনায় প্রিয়ঙ্কা গাঁধীকে সেখানে যেতে না দিয়ে গ্রেফতার করে ৫০ ঘন্টার ওপর সীতাপুরে রেখে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন। আজ রাহুল গাঁধী সহ দুই কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর লখিমপুর সফর ঘিরেও প্রবল অশান্তি হয়। প্রথমে  কিছুতেই তাঁদের যেতে দিতে রাজি হয়নি পুলিশ। পরে বলা হয়, তাঁরা যেতে পারেন, তবে পুলিশের গাড়িতে! এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন রাহুলরা। তীব্র বাদানুবাদের পর অনুমতি মেলে অবশেষে, রাহুলরা নিজেদের গাড়িতে লখিমপুর রওনা হন। এ নিয়ে তীব্র প্রতিবাদে সরব শিবসেনা সাংসদ (shivsena) সঞ্জয় রাউত। লখিমপুরে ১৪৪ ধারা জারি করে কেন বিরোধী নেতাদের লখনউয়ে আটকে দেওয়া হচ্ছে, প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, লখিমপুরে ১৪৪ ধারা জারি আর সরকার লখনউয়ে বিরোধীদের গ্রেফতার করছে। এ কী ধরনের আইন? উত্তরপ্রদেশ (uttarpradesh) কি পাকিস্তানে (pakistan) যে ভারতীয়দের সেখানে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে! এক রাজ্য থেকে আরেক রাজ্যে যেতে বিধিনিষেধ! এটা নতুন লকডাউন (lockdown) নাকি? প্রশাসন শাসক দলের খাঁচায় বন্দি তোতাপাখি (caged parrot), সরকার যা বলে, সেটাই মানে  বলে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, কৃষকদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দেওয়ার প্রমাণ আছে।  প্রিয়ঙ্কা গাঁধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাহুল গাঁধীকে বিমানে ওঠার সময় বাধা দেওয়া হয়েছে। একটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকেও আটকানো হয়েছে। ওদের কী অপরাধ?  দেশে কি নতুন সংবিধান (constitution) কায়েম হয়েছে?

লখিমপুর খেরিতে প্রতিনিধিদল পাঠানো নিয়ে সব বিরোধী দল আলোচনায় বসবে বলেও জানান সঞ্জয়।

এর পাশাপাশি শিবসেনা মুখপত্র সামনা-য় প্রকাশিত সম্পাদকীয়তে প্রিয়ঙ্কার তুলনা করা  হয়েছে তাঁর প্রয়াত ঠাকুমা ইন্দিরা গাঁধীর সঙ্গে। বলা হয়েছে, প্রিয়ঙ্কা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক। তাঁর ওপর রাজনৈতিক আক্রমণ হতে পারে, কিন্তু তিনি ইন্দিরা গাঁধীর মতো বিরাট নেত্রীর নাতনি, যিনি দেশের জন্য বিরাট ত্যাগ স্বীকার করেছেন, পাকিস্তানকে দুটুকরো করেছিলেন। যারা তাঁকে বেআইনিভাবে বন্দি করে রেখেছে, তারা যেন এটা মাথায় রাখে।

প্রিয়ঙ্কাকে সীতাপুরে আটকে দেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। তিনি ক্ষোভে ফেটে পড়ে পরোয়ানা দেখতে চান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লখিমপুর আসতে বলে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন। কেন তা নিয়ে মোদী নীরব, সেই প্রশ্ন তুলেছে শিবসেনা, বিজেপির এককালের ঘনিষ্ঠ শরিক।  শিবসেনা বলেছে, ঠাকুমার মতোই সমান তেজিয়ান প্রিয়ঙ্কা।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.