কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ ১ জুলাই থেকে, কী বলেছেন মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত মাসে প্রায় ৫২ লাখ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীর জন্য বড় সুখবর শুনিয়েছে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকার। বলেছে, শীঘ্রই তাঁরা পুরো ডিএ বা মহার্ঘ্যভাতা পাবেন। লিখিত উত্তরে রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর ঘোষণা করেন, ২০২১ এর ১ জুলাই থেকে তাঁরা পূর্ণ ডিএ-র সুবিধা পাবেন।

ঠাকুর জানান, তিনটি বকেয়া ডিএ-র কিস্তি একসঙ্গে পাবেন কেন্দ্রীয় কর্মচারীরা। সংশোধিত ডিএ হার কার্যকর হবে ১ জুলাই থেকে। কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের ডিএ চলতি বছরের জুন পর্যন্ত বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। সুতরাং ঠাকুরের ঘোষণায় কেন্দ্রীয় কর্মীদের মুখে হাসি ফোটা স্বাভাবিক। তিনি বলেছিলেন, ১ জুলাই, ২০২১ থেকে ডিএ-র আগামী দিনের কিস্তি রিলিজ করার সিদ্ধান্ত যখন নেওয়া হবে, ডিএ-র হারও ২০২০র ১ জানুয়ারি ও ১ জুলাই, ১ জানুয়ারি, ২০২১ থেকে ফের চালু হবে, ১ জুলাই, ২০২১ থেকে কিউমুলেটিভ সংশোধিত রেটে মিশিয়ে দেওয়া হবে।

অনুরাগের ঘোষণা অনুসারে, আগামী ১ জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের কার্যকর ডিএ চলতি ১৭ থেকে বেড়ে ২৮ শতাংশ হতে পারে। এই বাড়তি ১১ শতাংশের মধ্য়ে থাকছে ২০২০র জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ঘোষিত ৩ শতাংশ বর্ধিত ডিএ, ২০২০র জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ঘোষিত ৪ শতাংশ বর্ধিত ডিএ এবং ২০২১ এর জানুয়ারি থেকে জুন অবধি প্রত্য়াশিত ৪ শতাংশ বর্ধিত ডিএ। সব মিলিয়ে ডি এ বৃদ্ধির ফলে বেতন অনেকটাই বেড়ে যাবে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের। ডিএ ফের চালু হলে খুশি হবেন প্রায় ৬০ লাখ অবসরপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী বা পেনশনভোগীরাও। ডিএ স্থগিত রাখার সময় কেন্দ্র ডিয়ারনেস রিলিফও (ডিআর) বন্ধ রেখেছিল, যা পেনশনাররা পেয়ে থাকেন। কেন্দ্র করোনাকালে ডিএ ও ডিআরের তিনটি কিস্তি স্থগিত রেখেছিল আর্থিক পরিস্থিতি সামাল দিতে। কেন্দ্র বলেছিল, এভাবে ৩৭,৪৩০.০৮ কোটি টাকা বাঁচবে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More