মুম্বইয়ে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল চারতলা বাড়ি, শিশু সহ মৃত ১১, ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার ১৭

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রবল বৃষ্টিতে নাজেহাল মুম্বই। তার মধ্যেই ভয়ঙ্কর বিপর্যয় ঘটল বুধবার রাতে। মালাড এলাকায় হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল চারতলা একটি বাড়ি। মালাডের বস্তি এলাকায় ওই বাড়িটে ধসে পড়েছে অন্য একটি বাড়ির ওপরে। সেটিও ধুলিস্যাৎ হয়েছে। দুটি বাড়িতেই মানুষজন সে সময় রাতের খাওয়াদাওয়া সারছিলেন। আচমকা এই দুর্ঘটনায় প্রাণ বাঁচিয়ে বেরিয়ে আসতে পারেননি অনেকেই। চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১১ জনের। সার মধ্যে ৮ জন শিশু। জখম কমপক্ষে ১১ জন।

রাত সওয়া ১১টা নাগাদ এই ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় মানুষজন বলছেন, রাতে আচমকাই কান ফাটানো বিকট শব্দ পেয়ে তাঁরা বাইরে বেরিয়ে এসে দেখেন চারতলা একটি বাড়ি ধসে পড়েছে। ওই বাড়ির লাগোয়া আরও তিনটি বাড়ি ছিল। তার মধ্যে একটির ওপর ধসে পড়েছে ওই বাড়িটি। বাকিগুলির ভিতও নড়বড়ে। বিপজ্জনক অবস্থায় আছে। বাড়ি ভেঙে পড়তে দেখেই তাঁরা খবর দেন বৃহন্মুম্বই কর্পোরেশনে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ছুটে আসে দমকল।

9 Dead After Residential Building Collapses On Another In Mumbai's Malad

ঘটনাস্থল থেকে যে ছবি সামনে এসেছে, তাতে দেখা গিয়েছে, বাড়িটি ভেঙে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ধুলোর চাদরে ঢেকে যায় গোটা এলাকা। সেই অবস্থাতেই উদ্ধারকাজে হাত লাগান স্থানীয় মানুষরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় স্থানীয় পুলিশ ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর দলও। ধ্বংসাবশেষ সরিয়ে উদ্ধারকাজ শুরু করে দেয় তারা।

উদ্ধারকারী দল জানিয়েছে, দুর্ঘটনার সময় বাড়ির ভেতরে শিশুরাও ছিল। ধ্বংসস্তূপ থেকে এখনও পর্যন্ত ১৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। ১১ জনের মৃতদেহও উদ্ধার হয়েছে। জখমদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার সম্ভাবনা আছে।

ঠিক কী কারণে এই বিপর্যয় ঘটল, তা এখনও নির্দিষ্ট ভাবে জানা যায়নি। তবে গতকাল থেকেই ভারী বৃষ্টি চলছে মহারাষ্ট্রে। তার জেরেই মাটি আলগা হয়ে বিপত্তি ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে।

রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আসলাম শেখ। তিনি জানিয়েছেন, বৃষ্টির কারণেই এই বিপর্যয় হয়েছে। মালাডের যে এলাকায় বাড়ি ধসে পড়েছে সেখানে আরও কয়েকটি বাড়িও বিপজ্জনক পরিস্থিতিতে আছে। যে কোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। সেইসব বাড়ির বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় কিনা সে বিষয়টা খতিয়ে দেখতে বলেছেন তিনি।

মহারাষ্ট্রে আগামী চারদিন ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে মৌসম ভবন। এর আগেও প্রবল বৃষ্টিতে মহারাষ্ট্রের একাধিকবার বাড়ি ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। গত বছরই মহারাষ্ট্রের রায়গড় জেলার কাজলপুর এলাকায় একটি পাঁচতলা বাড়ি ভেঙে পড়ে। ধ্বংসস্তূপে আটকে পড়েছিলেন অন্তত ৭০ জন।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More