ট্রোলের জবাবে নজিরবিহীন কুকথা অমিতাভর! বিস্মিত মেগাস্টারের গুণমুগ্ধরাও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কেউ একজন ট্রোল করে তাঁকে বলেছিলেন, “আমি চাই আপনি করোনায় মরে যান।” তাঁকে জবাব দিতে গিয়ে আশি ছুঁই ছুঁই অমিতাভ বচ্চন যে কথা লিখলেন, তা শুধু বেনজির নয়, কতটা শালীন তা নিয়েই প্রশ্ন উঠল। অমিতাভ তাঁকে সরাসরিই বলেছেন, “তোমার বাবা কে তুমি নিজেই জানো না।” আবার এও লিখেছেন, আমি যদি আমার ভক্তদের বলি ‘ঠোক দো শালে কো’ তা হলে কী হবে ভেবে দেখেছো!

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন অমিতাভ বচ্চন। তাঁর শরীরে কোভিড পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে শোনা ইস্তক শুভেচ্ছা বার্তা ও দ্রুত আরোগ্য কামনায় ভরে গিয়েছে সমস্ত সোশাল মাধ্যম। সে সব দেখে তিনি যে অভিভূত ও আপ্লুত তা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই জানান দিচ্ছেন অমিতাভও।

কিন্তু এবার যেন বড় রকমের ছন্দপতন হল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলিব্রিটিদের ট্রোল করা নতুন নয়। হাজারে হাজারে শুভেচ্ছা বার্তার মধ্যেই সেরকমই এক আধটা তির্যক মন্তব্য, কটাক্ষ, বা কুকথা উড়ে এসেছে। যেমন ওই ব্যক্তি লিখেছিলেন (“আমি চাই আপনি করোনায় মরে যান”)।

ওই ব্যক্তি যে কুকথা বলেছেন তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। তবে ঘটনা হল, সাধারণত এসব ট্রোল নিয়ে অনেক সেলিব্রিটিই মাথা ঘামান না। কেউ কেউ মস্করা করে জবাব দেন। কিন্তু অমিতাভ শুধু জবাবই দেননি, যে ভাষায় জবাব দিয়েছেন, তা তাঁর গুণমুগ্ধদেরও অবাক করেছে।

অমিতাভ লিখেছেন, “কেউ চায় আমি কোভিড সংক্রমণে মরে যাই। তুমি যেই হও, নিজের বাবার নামটাও এখানে লেখনি। কারণ জানোই না যে কে তোমার বাবা”। দীর্ঘ পোস্টে বিগ বি আরও লিখেছেন যে, “দুটো ঘটনা ঘটতে পারে। হয় আমি বাঁচব। নয়তো মরে যাব। যদি আমি মরে যাই তাহলে কোনও সেলিব্রিটির নাম জড়িয়ে তোমার কুকথা লেখার কী হবে…করুণা হয়।”

তার পর তিনি আরও লিখেছেন, “জানবে অমিতাভ বচ্চনকে আক্রমণ করে এসব লিখছো বলেই নজরে এসেছো। এসব করে কিছু হবে না। আর যদি আমি ভগবানের দয়ায় বেঁচে থাকি এবং সুস্থ থাকি তাহলে শুধু আমার কাছ থেকে নয়, আমার ৯ কোটি একনিষ্ঠ ভক্তদের থেকেও নিন্দার ঝড় সামলাতে হতে পারে। আমার ভক্তরা আমার বর্ধিত পরিবার।”

অমিতাভ আরও লিখেছেন, “আমি আমার ভক্তদের এখনও এসব বলিনি। তবে যদি বেঁচে থাকি তাহলে ওদের সবই বলব। জেনে রেখো, তাঁরা একটা জোরাল শক্তি যা বিশ্বের পূর্ব থেকে পশ্চিম এবং উত্তর থেকে দক্ষিণে ছড়িয়ে রয়েছে। তাঁরা শুধুমাত্র একটি বর্ধিত পরিবারই নয়। সেই বর্ধিত পরিবার আজ নিমেষে ভস্মও করে দিতে পারে। আমার তাঁদের শুধু এইটুকুই বলার অপেক্ষা যে, ঠোক দো শালে কো।”

অমিতাভের এই ব্লগ নিয়ে বিস্তর আলোচনা শুরু হয়েছে এর মধ্যেই। বিশেষ করে ব্লগের শেষ পর্যায়ে বিগ বি’র এমন হুমকি শুনে চমকে গিয়েছেন অনেকেই। যে অমিতাভ বচ্চন এতদিন সব জায়গায় এত মার্জিত, নম্র এবং ভদ্র ব্যবহার করে এসেছেন সেই মানুষ মাত্র একজন ট্রোলারের মন্তব্যের পাল্টায় এত তির্যক ভাষায় কী ভাবে আক্রমণ করতে পারেন তাই নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More