দীপিকাকে কোনও পরামর্শ নয়, তবে আমি টুকরে গ্যাঙের পাশে দাঁড়াতাম না: কঙ্গনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জেএনইউয়ের সবরমতী হস্টেলে দীপিকা পাড়ুকোনের যাওয়া নিয়ে বহু বিতর্ক হয়েছে। বলিউডের একটা বড় অংশ অবশ্য সমর্থন করেছিলেন অভিনেত্রীকে। এমনকি নেটিজেনদের একটা বড় অংশেরও দাবি ছিল সুস্থ স্বাভাবিক নাগরিক হিসেবে উচিত কাজ করেছেন দীপিকা।

তবে প্রশংসার পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে সমালোচনার ঝড়ও বয়েছিল নেট দুনিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় একদম দাবি করেছিলেন, নিজের ছবি ‘ছপাক’-এর প্রচারের জন্যই সবরমতী হস্টেলে গিয়েছিলেন দীপিকা। মেঘনা গুলজার পরিচালিত এই ছবি বয়কটেরও ডাক দেন তাঁরা। রিলিজের পর সেভাবে বক্স অফিসে জমিয়ে ব্যবসাও করতে পারেনি ‘ছপাক’। এর মধ্যেই দীপিকা পাড়ুকোনের জেএনইউ যাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন বিটাউনের আর এক অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত।

বলিউডে ঠোঁটকাটা হিসেবেই পরিচিত কঙ্গনা। একার দক্ষতায় বক্স অফিসে ছবি হিট করানোর ক্ষমতাও রাখেন তিনি। ‘ছপাক’-এর মতো ছবি বলিউডে হচ্ছে শুনে দীপিকা এবং পরিচালক মেঘনার ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন কঙ্গনা। কারণ তাঁর দিদি রঙ্গোলি চান্দেলও একজন অ্যাসিড অ্যাটাক সারভাইভার। তবে দীপিকার জেএনইউ যাওয়ার ব্যাপারে তিনি যে খুব একটা প্রসন্ন নন সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন কঙ্গনা। সরাসরি দীপিকাকে আক্রমণ না করলেও তাঁর কথায় এটা স্পষ্ট।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে দীপিকার জেএনইউ যাওয়ার প্রসঙ্গে কঙ্গনা বলেন, “যেটা ইচ্ছে সেটা করার গণতান্ত্রিক অধিকার রয়েছে ওঁর। উনি খুব ভাল করেই জানেন কী করছেন। আমার এ ব্যাপারে মন্তব্য করা উচিত নয়। দীপিকা আপনি এটা করুন বা ওটা করবেন না, সেটা আমার বলা উচিত নয়। আমি শুধু নিজে কী চাই সেটা বলতে পারি। যাই হোক না কেন আমি কোনওদিনও টুকরে গ্যাং-এর সমর্থনে দাঁড়াতাম না।”

এরপরেই কঙ্গনা বলেন, ‘যাঁরা দেশ বা জাতিকে ভাগ করতে চায় আমি কখনই তাঁদের সমর্থন করব না। একজন জওয়ানের মৃত্যুতে যাঁরা উৎসব করেন তাঁদের পাশে আমি দাঁড়াব না। তাঁদের হাতে ক্ষমতা থাকুক সেটাও চাই না। আমি শুধু নিজে যা চাই সেটা বললাম। তবে দীপিকার ব্যাপারে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More