শীত বিদায়ের ঘণ্টা বেজেছে, সরস্বতী পুজোর আগেই পারদ চড়বে কলকাতায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শীতের ব্যাটিং শেষ হল বলে। লেপ-কম্বল মুড়ি দেওয়ার দিন ফুরিয়ে আসছে। এখন ওই সকাল আর রাতটাই যা একটু ঠান্ডা। বেলা বাড়লেই বেশ চড়া রোদ। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণও বেশি। শোয়েটার, জ্যাকেট চাপালে বেশ অস্বস্তিই হচ্ছে। কনকনে শীতের মেজাজটাই আর নেই। বরং গরমের পাল্লাই ভারী হচ্ছে। আর মাত্র ক’টা দিন। আলিপুর হাওয়া অফিস স্পষ্ট করে বলেই দিয়েছে, শীতকে ‘ফেয়ারওয়েল’ দেওয়ার দিন এসে গেল বলে।

বর্ষার মতো শীত বিদায়ের কোনও নির্দিষ্ট নির্ঘণ্ট হয় না। হাড়হিম উত্তুরে হাওয়া যতক্ষণ আছে, শীতের আস্ফালণও ততক্ষণই। উত্তুরে হাওয়া তার মতিগতি বদলালে, শীতের দিনও ফুরিয়ে আসে। তেমনটাই হচ্ছে বঙ্গে। জাঁকিয়ে শীত আর পড়বে না বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে এখনই ঝপ করে শীত বিদায় নেবে, তেমনটা নয়। আর কয়েকটা দিন ঠান্ডার আমেজ থাকবে। সকালের দিকে হাল্কা কুয়াশাও থাকবে। তবে বেলা গড়ালে তাপমাত্রার পারদ চড়চড় করে বাড়বে। রাতের দিকে আবার খানিকটা পারদ পতন হতে পারে।

মাঘের শীত এবারে বেশ লুকোচুরি খেলেছে। শুরুতে ঠান্ডা-গরমের মিশেলে একটা জগাখিচুড়ি পরিস্থিতি ছিল রাজ্যে। সকালের দিকে মোটা কুয়াশার স্তর আবার বেলা বাড়লে চড়া রোদ। এরপরে ফের কুয়াশার চাদর পুরু হয়ে দৃশ্যমানতা কমতে থাকে। ডিসেম্বরের শেষে এক লাফে পারদ নেমে যায় অনেকটাই। জানুয়ারি আসতেই জমিয়ে ব্যাটিং শুরু করে শীত। আবহাওয়াবিদরা বলেন, শীতের নতুন ইনিংস শুরু হল। সপ্তাহখানেক চালিয়ে ব্যাট করবে। তাই হল। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতে নেমে এল। জেলাগুলিতে কোথাও ১০ ডিগ্রি অবধি পারদ পতন হল। তবে আর নয়। এবার থেকে তাপমাত্রার পারদ আবার উঠবে বলেই পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

সরস্বতী পুজোর আগেই তাপমাত্রা বাড়ার সম্ভাবনা প্রবল। সপ্তাহান্তে কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পৌঁছবে ১৪ ডিগ্রিতে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩০ ডিগ্রি। আকাশ কিছুটা মেঘলা হতে পারে, তবে বৃষ্টির সম্ভাবনা এখনই নেই।

হাওয়া অফিস বলছে, আগামী কয়েকদিনে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আরও কয়েক ডিগ্রি চড়বে। ১৮ থেকে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছতে পারে। দক্ষিণ ও উত্তরের জেলাগুলিতেও তাপমাত্রা বাড়বে। দিনের বেলা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রির নীচে নামবেই না।

আজই তো কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের চেয়ে ২ ডিগ্রি নীচে। গতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অতএব শীত যে বিদায় নিতে চলেছে এটা এখন বোঝাই যাচ্ছে। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণও বেড়েছে, প্রায় ৯৯ শতাংশ। গাঙ্গেয় বঙ্গে আর ঘন কুয়াশার সম্ভাবনা তেমন নেই। তবে দিল্লি, পাঞ্জাব, চণ্ডীগড় ও হরিয়ানায় আরও কয়েকটা দিন কুয়াশার সতর্কতা জারি হয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More