তেলেঙ্গানায় কোভিড পজিটিভ সাংবাদিকের মৃত্যু, এক সপ্তাহে আক্রান্ত আরও ১৩

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তেলেঙ্গানায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এক সাংবাদিকের মৃত্যু হয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন তিনি। গত এক সপ্তাহে এই রাজ্যে আরও ১৩ জন সাংবাদিক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর।

জানা গিয়েছে, ৩৩ বছর বয়সী ওই সাংবাদিক একটি তেলুগু খবরের চ্যানেলে কাজ করতেন। গত মাসে সংক্রামিত হন তিনি। ৪ জুন রাজ্য সরকারি একটি হাসপাতাল থেকে হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। সেখানেই আইসিইউতে ছিলেন ওই সাংবাদিক।

হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, করোনা ছাড়াও একাধিক সমস্যা ছিল ওই সাংবাদিকের। যখন তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, তখন তাঁর টাইপ ১ নিউমোনিয়া, শ্বাসযন্ত্রে সমস্যা ও অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ডিজিজ সিনড্রোম ছিল। মিয়াসথেনিয়া গ্রেভিস নামের এক স্নায়ুরোগেও নাকি বেশ কয়েক বছর ধরে ভুগছিলেন ওই সাংবাদিক। এই রোগে শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ দুর্বল হয়ে যায়।

রাজীব গান্ধী হাসপাতালের ডিরেক্টর ডক্টর এম রাজা রাও জানিয়েছেন, “ওই সাংবাদিক আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন। তাঁর জন্য একটি মেডিক্যাল বোর্ডও তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু এদিন সকালে তাঁর কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। সকাল ৯টা ৩৭ মিনিট নাগাদ তিনি মারা যান।”

গত এক সপ্তাহে তেলেঙ্গানায় অন্তত ১৩ সাংবাদিক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে অবশ্য সবার অবস্থা স্থিতিশীল বলেই জানানো হয়েছে।

রবিবার নতুন করে তেলেঙ্গানায় ১৫৪ জন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। এই নিয়ে এই রাজ্যে আখনও পর্যন্ত ৩৬৫০ জন আক্রান্ত হয়েছে। মারা গিয়েছেন ১৩৭ জন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, ৮ জুন, সোমবার, সকাল ৮টা পর্যন্ত নতুন করে ৯৯৮৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন নভেল করোনাভাইরাসে। অর্থাৎ দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২,৫৬,৬১১। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২০৬ জন মারা গিয়েছেন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৭ হাজার ছাড়িয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৭১৩৫ জন মারা গিয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৮০২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অর্থাৎ এখনও পর্যন্ত ভারতে কোভিড ১৯ থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ১,২৪,০৯৫। অর্থাৎ এই মুহূর্তে দেশে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১,২৫,৩৮১।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More