বাড়িতে মাদক মেলায় আটক ভারতী-হর্ষ, নিয়ে যাওয়া হল এনসিবি দফতরে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রথমে বাড়ি তল্লাশি, তারপরে আটক করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো বা এনসিবি দফতরে নিয়ে যাওয়া হল কমেডিয়ান ভারতী সিং ও তাঁর স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়াকে। জানা গিয়েছে, মাদক যোগ নিয়ে জেরা করার জন্য মুম্বইয়ের দফতরে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাড়ি তল্লাশির সময় তাঁদের কাছে সামান্য পরিমাণে গাঁজা উদ্ধার হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তারপরেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁদের আটক করেন এনসিবি আধিকারিকরা।

এদিন সকালেই অন্ধেরিতে ভারতী ও হর্ষের অ্যাপার্টমেন্টে যান এনসিবি আধিকারিকরা। বেশ খানিকক্ষণ সেখানে থাকেন তাঁরা। তারপরেই দেখা যায় হর্ষ ও ভারতী আধিকারিকদের সঙ্গে বেরিয়ে আসছেন। একটা লাল রংয়ের মার্সিডিজে চড়ে সেখান থেকে বেরিয়ে যান ভারতী। হর্ষকে সাদা রংয়ের এনসিবির একটি ভ্যানে তোলা হয়।

কিছুক্ষণ পরে দেখা যায় এনসিবি দফতরে হাজির করা হয়েছে তাঁদের। সংবাদমাধ্যমের সামনে ভারতী কিছু না বললেও হর্ষ জানান, “আমাদের কিছু প্রশ্নের জন্য এখানে ডাকা হয়েছে। তাই আমরা এসেছি। আর কিছু নয়।”

সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, সমীর ওয়াংখেড়ে নামের এক তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, “মাদক তাঁদের কাছে কীভাবে এল, সেই সম্পর্কিত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে ভারতী সিং ও তাঁর স্বামীকে।” আর এক এনসিবি আধিকারিক সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, এক মাদক কারবারীকে জেরা করার সময় ভারতী সিংয়ের নাম উঠে আসে। তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে সামান্য পরিমাণে গাঁজা উদ্ধার হয়েছে। মুম্বইয়ের আরও দুটি জায়গায় হানা দিয়েছে এনসিবি।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে নেমে বলিউডের সঙ্গে মাদক যোগের খোঁজ মিলেছে। তারপর থেকে উঠে এসেছে একের পর এক অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নাম। ইতিমধ্যেই নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো বা এনসিবির সামনে হাজিরা দিয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন, সারা আলি খান, রকুলপ্রীত সিং, শ্রদ্ধা কাপুররা। নাম জড়িয়েছে একাধিক প্রযোজকেরও। কিছুদিন আগে এই তালিকায় যোগ হয়েছে অভিনেতা অর্জুন রামপালের নামও। গত শুক্রবার মুম্বইয়ে এনসিবি দফতরে হাজিরাও দিয়েছেন অর্জুন।

অর্জুনের হাজিরার কয়েক দিন আগে এনসিবি আধিকারিকরা তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালান। তারপরে তাঁর বান্ধবী গ্যাব্রিয়েলা দেমেত্রিয়াদিসকে প্রায় ৬ ঘণ্টা ধরে জেরা করা হয়। গ্যাব্রিয়েলার ভাই অ্যাগিসিয়ালস দেমেত্রিয়াদিস এর আগে মাদক যোগে দু’বার গ্রেফতার হয়েছেন বলে খবর। অ্যাগিসিয়ালসকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পল বার্টেল নামের এক অস্ট্রেলীয় আর্কিটেক্টের নাম পায় এনসিবি। তাঁকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। এই মুহূর্তে এনসিবি হেফাজতে রয়েছেন তিনি।

এছাড়া প্রযোজক ফিরোজ নাদিয়াদওয়ালাকেও ডেকে পাঠায় এনসিবি। মুম্বইয়ের জুহুতে তাঁর বাড়ি থেকে ১০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার হওয়ায় গ্রেফতার করে হয় তাঁর স্ত্রী শাবানা সঈদকে। তারও কিছুদিন আগে অন্ধেরিতে এক মাদক পাচারকারী ওয়াহিদ আব্দুল কাদির শেখকে গ্রেফতার করে এনসিবি। তার সূত্রে ধরেই শাবানার খোঁজ পায় এনসিবি। তারপরেই তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। যদিও পরে জামিনে ছাড়া পান তিনি।

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে নেমে তাঁর বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাই শৌভিককেও জেরা করে এনসিবি। দু’জনকেই গ্রেফতার করা হয়। একমাস জেলে থাকার পরে জামিন পান রিয়া। শৌভিক এখনও জেলে। তার মধ্যেই ফের বলিউডের একের পর এক নাম এই মাদক যোগে জড়িয়ে পড়ছে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More