আইসিইউতে আহমেদ পটেল, করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অক্টোবরের শুরুতে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা আহমেদ পটেল। তারপর থেকে বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলেন তিনি। তবে রবিবার তাঁকে গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে বলে খবর। আহমেদ পটেলের ছেলে এই খবর দিয়েছেন।

রবিবার টুইট করে এই কথা বলেন আহমেদ পটেলের ছেলে ফয়জল পটেল। তিনি জানান আইসিইউতে ভর্তি করা হলেও কংগ্রেস নেতার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি বলেন, “পরিবারের হয়ে আমি সবাইকে জানাতে চাই, আহমেদ পটেল কয়েক সপ্তাহ আগে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাঁকে চিকিৎসার জন্য গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল ও তাঁকে চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। আমরা আবেদন করছি আপনারা ওনার দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার প্রার্থনা করুন।”

এই খবর পাওয়ার পরে আর এক বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মা টুইট করে বলেন, “আমার বন্ধু ও সহযোদ্ধা আহমেদ পটেলের খবর পেয়ে খুবই চিন্তায় রয়েছি। ওনার শরীরের জন্য প্রার্থনা করছি। দয়া করে তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে আমাদের সঙ্গে যোগ দিন।”

গত ১ অক্টোবর করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন আহমেদ পটেল। আরও দুই বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিংভি ও তরুণ গগৈও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। অবশ্য তাঁরা ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং। নিজেই টুইট করা সেকথা জানিয়েছেন তিনি। টুইটে বীরেন লিখেছেন, “আমার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আমি সবাইকে অনুরোধ করছে সম্প্রতি যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁরা নিজেদের আইসোলেশনে রাখুন ও কোভিড টেস্ট করিয়ে নিন।”

রাজনৈতিক মহলে অনেকেই করোনার কবলে পড়েছেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান, কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী নিতীন গড়কড়ি, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা তাঁদের মধ্যে অন্যতম। এছাড়া অনেক বিধায়ক ও সাংসদও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More