অনেকটাই বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ, দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫ লাখ ছুঁইছুঁই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গতকালের তুলনায় ভারতে দৈনিক সংক্রমণ অনেকটাই বাড়ল। গতকাল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩১ হাজার। এদিন তা বেড়ে ৩৬ হাজারের বেশি হয়েছে। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৯৫ লাখের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা এদিন ৫০০ পেরিয়ে গিয়েছে। অবশ্য এদিনও দৈনিক আক্রান্তের থেকে বেশি দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩ হাজারের বেশি আক্রান্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। ফলে মোট সুস্থতার সংখ্যা ৮৯ লাখ পেরিয়ে গিয়েছে। ফলে দৈনিক সংক্রমণ বাড়লেও অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কমেছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৬ হাজার ৬০৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে ২ ডিসেম্বর, বুধবার, সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪ লাখ ৯৯ হাজার ৪১৩ জন।

বুলেটিন জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। অর্থাৎ দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৩৮ হাজার ১২২ জন। ভারতে করোনায় মৃত্যুহার ১.৪৫ শতাংশ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে উঠেছেন ৪৩ হাজার ৬২ জন। ভারতে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা ৮৯ লাখ ৩২ হাজার ৬৪৭ জন। এই মুহূর্তে দেশে সুস্থতার হার ৯৪.০৩ শতাংশ। অর্থাৎ এই মুহূর্তে দেশে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ২৮ হাজার ৬৪৪ জন। মোট আক্রান্তের ৪.৫১ শতাংশ রোগী এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রয়েছেন।

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লাখ ৮২ হাজার ৮২৬ জন। মহারাষ্ট্রে কোভিডে মারা গিয়েছেন ৪৭ হাজার ২৪৭ জন। আক্রান্তের সংখ্যায় মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে কর্নাটক। দক্ষিণের এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ৮৬ হাজার ৬০৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ৭৯২ জনের। তিন নম্বরে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ৬৮ হাজার ৭৪৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৯৯৬ জনের। চার নম্বরে রয়েছে তামিলনাড়ু। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৮৩ হাজার ৩১৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ৭২২ জনের। পাঁচ নম্বরে রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৭৪ হাজার ৩৮০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৯২৬০ জনের। ছ’নম্বরে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৫৪৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭৭৮৮ জনের।

মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশ, এই ছয় রাজ্যেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৫৫ লাখ। এই রাজ্যগুলি মিলিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ লাখ ৮৭ হাজার ৪৬ জন। এই সংখ্যা দেশের মোট আক্রান্তের ৫৭.৭৬ শতাংশ। এই ছয় রাজ্য মিলিয়ে মোট ৯৪ হাজার ৮০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা দেশের মোট মৃত্যুর ৬৮.৬৪ শতাংশ।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More