মধ্যরাতে বিশাল ঝাপটা পুদুচেরিতে, শক্তি কমে দক্ষিণের উপকূল ছাড়ছে নিভার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাত তথন আড়াইটে। পুদুচেরির উপকূলে সজোরে আছড়ে পড়ল নিভার। শক্তিতে তখন সে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়। ঝড়ের দাপট দেখা গেল তামিলনাড়ুতেও। তুমুল বৃষ্টি, সেই সঙ্গে প্রচণ্ড হাওয়ার গতি। তবে আগে থেকেই তৈরি ছিল জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল। সজাগ ছিল ভারতীয় নৌসেনাও। উপকূলবর্তী এলাকাগুলি থেকে সাধারণ মানুষজনকে আগেই সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তাই প্রাণহানির কোনও খবর এখনও মেলেনি।

বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণীঝড় ঘনীভূত হওয়ার সময় থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়েছিল চেন্নাই, পুদুচেরিতে। গতকাল অতি ভারী বৃষ্টি হয় চেন্নাই, পুদুচেরি, কাড্ডালোর-সহ বিভিন্ন এলাকায়। নিভারের দাপটে আজ সকাল থেকে বৃষ্টির তেজ আরও বেড়েছে। ঝোড়ো হাওয়া বইছে। মৌসম ভবন জানিয়েছে, আজ সারাদিন মুষলধারে বৃষ্টি হবে উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে।

শক্তি কমেছে নিভারের, এখন কোথায় অবস্থান

মৌসম ভবন জানাচ্ছে, স্থলভাগে ল্যান্ডফলের সময়েই শক্তি কমে যায় নিভারের। মধ্যরাতে আছড়ে পড়ার পরেই অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে বদলে যায়। রাতভর তাণ্ডব করে এখন পুদুচেরির উপকূল ছেড়ে বেরোচ্ছে নিভার। ঝড়ের অবস্থান এখন কুড্ডালোর থেকে ৫০ কিলোমিটার পূর্ব-দক্ষিণপূর্বে এবং পুদুচেরি থেকে ৪০ কিলোমিটার দক্ষিণপূর্বে। ১৪৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা থেকে গতিবেগ কমে ১০০ থেকে ১১০ কিলোমিটারে পৌঁছেছে। তবে সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার অবধি পৌঁছতে পারে।

Image

রাত আড়াইটে আছড়ে পড়ল নিভার, তুমুল বৃষ্টি চেন্নাই, পুদুচেরিতে

বিকেল থেকে একটু একটু করে উপকূলের দিকে এগিয়েছে ঘূর্ণিঝড়। রাত পৌণে ১২টা নাগাদ যখন পুদুচেরির উপকূল থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে ছিল তখনই সতর্ক করা হয় ভারতীয় নৌবাহিনীকে। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দলের ৮০টি টিম নামানো হয়েছিল। যার মধ্যে ২০টি দল মোতায়েন ছিল তামিলনাড়ু ও পুদুচেরির উপকূলে। রাত আড়াইটে নাগাদ ল্যান্ডফল হয় ঝড়ের। এরপরের তিন ঘণ্টায় ঝড়ের গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় ৬৫-৭৫ কিলোমিটার কমে যায়।

cyclone nivar, cyclone tracker, cyclone nivar landfall, cyclone nivar live tracking, cyclone update, cyclone live map, cyclone in tamil nadu, cyclone nivar intensity

মৌসম ভবন জানাচ্ছে, ঝড়ের শক্তি কমলেও বিপদ এখনও পুরোপুরি কাটেনি। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। তামিলনাড়ু ও পুদুচেরিতে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়বে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, গতকাল ২২৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে তামিলনাড়ুতে। আজ আরও ২০ সেন্টিমিটার বা তার বেশি বৃষ্টি হতে পারে তামিলনাড়ুতে। উত্তরের জেলাগুলিতে ২৪ সেন্টিমিটারের বেশি বৃষ্টি হতে পারে। ভারী বৃষ্টি (৬৪ থেকে ১১৫ মিলিমিটার) হবে তেলঙ্গানা, অন্ধ্র উপকূল ও দক্ষিণ কর্নাটকে। নিভারের প্রভাবে বৃষ্টি হবে ছত্তীসগড় ও ওড়িশাতেও। আজ থেকে ২৭ তারিখ অবধি এই দুই রাজ্যেও অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি হয়েছে।

তুমুল বৃষ্টি হবে পুদুকোট্টাই, থাঞ্জাভুর, তিরুভারুর, কারাইকাল, নাগাপাট্টিনাম, কুড্ডালোর, আরিয়ালুর ও পেরাম্বুতে। তিরুভান্নামালাই, চেঙ্গালপাট্টু ও কারাইকালের ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। অন্ধ্রের উপকূল, নেল্লোর ও চিত্তোর জেলায় আগামীকাল অবধি অতি ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন।

তামিলনাড়ুতে লাল সতর্কতা জারি হয়েছে। পুদুচেরিতে ১৪৪ ধারা চলছে গতকাল থেকেই। মঙ্গলবার থেকেই তামিলডনাড়ুতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে আন্তঃজেলা বাস পরিষেবা। বাতিল হয়েছে ট্রেন। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পলানিস্বামী ও পুদুচেরির মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামী টুইট করে জানিয়েছেন, আগামী তিনদিন তামিলনাড়ুর ১৩টি জেলায় স্কুল, কলেজ, অফিস সব বন্ধ থাকবে। প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, বিপর্যয় মোকাবিলায় সবরকম সাহায্য দিতে প্রস্তুত কেন্দ্রীয় সরকার।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More