গ্রেনেড হামলা শ্রীনগরে, ২ সিআরপিএফ জওয়ান-সহ আহত ৪

এক মাস আগেই এক গ্রেনেড হামলায় আহত হয়েছিল ১৬ বছরের এক কিশোর। গত বছর ২৬ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বরের মধ্যে জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় তিনটি গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। এই হামলায় একজন নিহত ও অন্তত ১২জন আহত হয়েছিলেন।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের গ্রেনেড হামলা হল জম্মু-কাশ্মীরের শ্রীনগরে। এই হামলায় দুই সিআরপিএফ জওয়ান-সহ চারজন আহত হয়েছেন বলে খবর।

রবিবার দুপুরে শ্রীনগরের লাল চকে এই গ্রেনেড হামলা হয়। জানা গিয়েছে, জঙ্গিদের নিশানায় ছিলেন সিআরপিএফ জওয়ানরা। কিন্তু ভাগ্যক্রমে তাঁরা বেঁচে যান। সিআরপিএফ সূত্রে খবর, শ্রীনগরের লাল চকে প্রতাপ পার্কের কাছে এই হামলা চালানো হয়। গত বছর জম্মু-কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পর থেকে এই এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ছিল।

জানা গিয়েছে, ছুটির দিন হওয়ায় সেই সময় সেখানে অনেক মানুষ বাজার করতে এসেছিলেন। হঠাৎ করে সেখানে গ্রেনেড হামলায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। সবাই দৌড়াদৌড়ি করতে থাকেন। তার সুযোগ নিয়ে জঙ্গিরা পালিয়ে যায় বলে খবর।

এই হামলায় সিআরপিএফের দুই জওয়ান ছাড়া দুই সাধারণ মানুষ আহত হয়েছেন। চারজনকেই শ্রীনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছেন নিরাপত্তারক্ষীরা। জঙ্গিদের খোঁজ শুরু হয়েছে। এই কাজে সেনাকে সাহায্য করছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।

গত মাসে একই ধরনের হামলা হয়েছিল শ্রীনগরে। সিআরপিএফ জওয়ানদের উপরেই গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। সেই হামলায় ১৬ বছরের এক কিশোর আহত হয়েছিল। গত বছর ২৬ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বরের মধ্যে জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় তিনটি গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। এই হামলায় একজন নিহত ও অন্তত ১২জন আহত হয়েছিলেন।

জম্মু-কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পর থেকেই নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে উপত্যকাকে। যাতে কোনওভাবেই সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ না হয়, তার জন্য তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছেন নিরাপত্তারক্ষীরা। কিন্তু তারপরেও এই ধরনের গ্রেনেড হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More