এক সপ্তাহ ধরে নতুন আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে ভারত, টেক্কা ব্রাজিল, আমেরিকাকেও, জানাল হু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে এই বৃদ্ধি সাংঘাতিক হারে বেড়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু জানিয়েছে, গত সাতদিন ধরে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ব্রাজিল ও আমেরিকাকে ছাড়িয়ে শীর্ষস্থানে রয়েছে ভারত। শুধু তাই নয়, হু জানিয়েছে ৪ অগস্ট থেকে ১০ অগস্ট, এই সাতদিন বিশ্বের মোট আক্রান্তের ২৩ শতাংশের বেশি ও মোট মৃত্যুর ১৫ শতাংশের বেশি ভারতে দেখা গিয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা তৃতীয় স্থানে থাকা ভারতে ৪ থেকে ১০ অগস্টের মধ্যে ৪ লাখ ১১ হাজার ৩৭৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই সময়ের মধ্যে ৬২৫১ জন মারা গিয়েছেন। এই সময়ের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে থাকা আমেরিকায় মোট ৩ লাখ ৬৯ হাজার ৫৭৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৭২৩২ জনের। এই সাতদিনে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৪ হাজার ৫৩৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৯১৪ জনের।

হু-র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ভারতে গত ৪ অগস্ট আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫২ হাজার ৫০ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৪৭ হাজার ১৮৩ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ২৫ হাজার ৮০০ জন। ৫ অগস্ট ভারতে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫২ হাজার ৫০৯ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৪৯ হাজার ১৫১ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ১৬ হাজার ৬৪১ জন। ভারতে ৬ অগস্ট আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫৬ হাজার ২৮২ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৪৯ হাজার ৬২৯ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ৫১ হাজার ৬০৩ জন। ৭ অগস্ট ভারতে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৬২ হাজার ৫৩৮ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৫৩ হাজার ৩৭৩ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ৫৭ হাজার ১৫২ জন। ভারতে ৮ অগস্ট আক্রান্ত হয়েছিলেন ৬১ হাজার ৫৩৭ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৫৫ হাজার ৩১৮ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ৫৩ হাজার ১৩৯ জন। ৯ অগস্ট ভারতে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৬৪ হাজার ৩৯৯ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৬১ হাজার ২৮ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ৫০ হাজার ২৩০ জন। ভারতে ১০ অগস্ট আক্রান্ত হয়েছিলেন ৬২ হাজার ৬৪ জন। সেদিন আমেরিকায় আক্রান্ত হন ৫৩ হাজার ৮৯৩ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হন ৪৯ হাজার ৯৭০ জন।

ভারতে টানা চারদিন ধরে আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজারের বেশি বাড়ার পরে মঙ্গলবার নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। এই মুহূর্তে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ৬৮ হাজার পেরিয়ে গিয়েছে। ভারতে প্রথম এক লাখ আক্রান্তে পৌঁছতে সময় লেগেছিল ১১০ দিন। ১০ লাখ পেরতে সময় লাগে আরও ৫৯ দিন। ১০ লাখ থেকে ২২ লাখ অর্থাৎ ১২ লাখ আক্রান্ত বেড়েছে মাত্র ২৪ দিনে।

অবশ্য সেইসঙ্গে ভারতে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাও বাড়ছে। এই মুহূর্তে দেশে ১৫ লাখ ৮৩ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এই হার প্রায় ৭০ শতাংশ। আরও একটা ভাল খবর হল মৃত্যুহার কমা। এই হার কমতে কমতে ২ শতাংশের নীচে নেমে গিয়েছে। মঙ্গলবারের বুলেটিন অনুযায়ী ভারতে মৃত্যুহার ১.৯৯ শতাংশ।

ভারতে প্রতি ১০ লাখ জনসংখ্যায় নমুনা পরীক্ষার হার অবশ্য আমেরিকা ও ব্রাজিলের থেকে কম। ভারতে প্রতি ১০ লাখে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৮ হাজার ৩০০ জনের। আমেরিকায় প্রতি ১০ লাখে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১ লাখ ৯৯ হাজার ৮০৩ জনের। ব্রাজিলে এই সংখ্যাটা ৬২ হাজার ২০০।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More