হৃদরোগে আক্রান্ত কপিল দেব

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দ্য ওয়াল ব্যুরো: হৃদরোগে আক্রান্ত প্রাক্তন বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় অধিনায়ক কপিল দেব নিখাঞ্জ। ভর্তি রয়েছেন দিল্লির একটি হাসপাতালে।

কপিল দেবের অসুস্থতার খবর টুইটারে শেয়ার করেছেন টিনা ঠাকরে নামের জনৈক সাংবাদিক। তিনি লিখেছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন কপিল দেব। দিল্লির একটি হাসপাতালে তাঁর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে। ওনার দ্রুত আরোগ্য কামনা করুন।

বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের অসুস্থতার খবর প্রকাশ হতেই উদ্বিগ্ন হয়েছেন তাঁর ভক্তরা। সকলেই তাঁর দ্রুত শারীরিক উন্নতির জন্য প্রার্থনা করছেন। কপিল দেবের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার খবরে উদ্বেগ ছড়িয়েছে ক্রীড়া মহলে। দুশ্চিন্তায় ক্রিকেটারের অনুরাগীরাও। সকলেই জানতে চাইছেন কেমন রয়েছেন কপিল দেব।

৬১বছরের এই মহাপ্রাক্তন কোনওদিন তেমন গুরুতর অসুস্থ হননি। এতদিন তিনি নিরোগই ছিলেন। কিন্তু আচমকা কী কারণে এমন অসুস্থতা, সেই নিয়ে ক্রিকেটমহলে কৌতূহল তৈরি হয়েছে। বলা হচ্ছে, তা হলে কী চিরশ্রেষ্ঠ অলরাউন্ডারের হার্টের কোনও অসুখ ছিল।

করোনাকালের মধ্যে লকডাউনের সময় কপিল একবারই প্রকাশ্যে এসেছিলেন। তিনি বাড়িতেই ছিলেন এই সময়ে। সেইসময় দেখা যায় পাকা দাঁড়ি নিয়ে তাঁর নয়া লুক, যেন হঠাৎ করেই তাঁর বয়স বেড়ে গিয়েছিল।

প্রসঙ্গত, কপিল খেলেছেন ১৩১টি টেস্ট, রান করেছেন ৫২৪৮ রান, উইকেট ৪৩৪টি। ২২৫টি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছেন, ৩৭৮৩ রান করেছেন। ২৫৩টি ওয়ান ডে উইকেট তাঁর ঝুলিতে।

১৯৭৮ সালের ১লা অক্টোবর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফয়সালাবাদে তাঁর টেস্ট অভিষেক হয়। নিজেকে প্রতিদিন তিনি উন্নতির শিখরে নিয়ে গিয়েছিলেন। তাঁকে বলা হতো ‘হরিয়ানা হ্যারিকেন’। তিনি খেলা থেকে অবসর নিয়ে ভারতীয় দলের কোচও হন। কিন্তু তাঁকে ভারতীয় ক্রিকেট মনে রাখবে ১৯৮৩ সালে লর্ডসে ভারতকে বিশ্বসেরা করানোর জন্য। তাঁর নেতৃত্বে ভারত প্রথম বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পায়। সেই আসরেই জিম্বাবোয়ের বিপক্ষে তাঁর ১৭৫ রান ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা রয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More