প্রবল বৃষ্টিতে বানভাসি হায়দরাবাদ, বন্যার জলের তোড়ে ভেসে যাচ্ছে মানুষ, গাড়ি

তিনদিনের টানা বৃষ্টিতে হায়দরাবাদের ফলকনুমা এলাকা বিপর্যস্ত। বন্যার জলে ভেসেছে রাস্তাঘাট। ফলকনুমার বারকাস এলাকার পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ। জলের স্রোত এতই বেশি যে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িও টেনে নিয়ে যাচ্ছে।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বন্যার জল যেন বাঁধভাঙা। রাস্তার দু’পাশ ছাপিয়ে জলের স্রোত ঢুকছে বাড়িঘরে। ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দোকানপাট, গাড়ি। জলের তোড়ে ভেসে যাচ্ছে মানুষও। হায়দরাবাদের বন্যার ভয়ঙ্কর ছবি ও ভিডিও সামনে এল।

তিনদিনের টানা বৃষ্টিতে হায়দরাবাদের ফলকনুমা এলাকা বিপর্যস্ত। বন্যার জলে ভেসেছে রাস্তাঘাট। ফলকনুমার বারকাস এলাকার পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ। জলের স্রোত এতই বেশি যে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িও টেনে নিয়ে যাচ্ছে। সেই ভিডিও সামনে এসেছে। আজ সকালে বারকাস এলাকার আরও একটি ঘটনা হাড়হিম করে দিয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, বন্যার জল ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে একজনকে। হাত-পা ছুড়ে বাঁচার আপ্রাণ চেষ্টা করছেন তিনি। চোখের সামনে একজন মানুষকে এভাবে ভেসে যেতে দেখে চিৎকার করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। উদ্ধারের আপ্রাণ চেষ্টা করছেন দু’জন। একটা টায়ার ছুড়ে দিতেও দেখা যায়। কিন্তু স্রোত এতটাই বেশি যে টায়ারও ভেসে চলে যায় জলের টানে।

Hyderabad Floods Rain Scary visuals photos videos Telangana Latest Updates | India News – India TV

লাগামছাড়া বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত তেলঙ্গানা ও অন্ধ্রপ্রদেশ। আবহাওয়া দফতর বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ সেন্টিমিটার বৃষ্টি হয়েছে হায়দরাবাদে। বঙ্গোপসাগরে ঘনিয়ে ওঠা নিম্নচাপের জেরে গভীর ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে। এই ঘূর্ণাবর্তের কারণেই প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছে তেলেঙ্গানা ও অন্ধ্রে। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, আরও কয়েকদিন বৃষ্টিতে ভাসবে তেলঙ্গানা। এর পরে ঘূর্ণাবর্ত ধীরে ধীরে মহারাষ্ট্র ও কর্নাটকের দিকে সরে যাবে।

গতকাল, মঙ্গলবার রাতেই হায়দরাবাদের বান্দলাগুডা এলাকার একটি বাড়ির দেওয়াল ভেঙে পড়ে মৃত্যু হয়েছে ৩টি শিশু সহ ৯ জনের। মৃতদের মধ্যে ১৯ দিনের শিশুও রয়েছে। গত ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি ও বন্যার কারণে ১২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। বাড়িঘর ভেঙে গেছে। অনেক বাড়ির উঠোন ভেঙে ভাসিয়ে নিয়ে গেছে বন্যার জল। মৃতের সংখ্যা বাড়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

Hyderabad Floods Rain Scary visuals photos videos Telangana Latest Updates | India News – India TV

রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে তেলঙ্গানার মুখ্যসচিব সোমেশ কুমার জানিয়েছেন, যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধারকাজ শুরু করেছে রাজ্য ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল। রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে দুদিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছেন তিনি। টলিচৌকি, বেগমপেট, মেহেদিপট্টনমের মতো নিচু জায়গাগুলো বন্যার জলে ভেসে গেছে। উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন গ্রেটার হায়দরাবাদ পুরনিগমের কর্মীরা। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, বিগত কয়েক বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে এ বছর অক্টোবরেই। এখনও অবধি ১৯১.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে গ্রেটার হায়দরাবাদে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More