ভারতে প্রথম টিকা নিলেন শতায়ু বৃদ্ধা, পায়ে হেঁটে গিয়ে ডোজ নিয়েছেন শশীকলা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ব্রিটেন, আমেরিকায় টিকাকরণ শুরু হওয়ার পরে খবর আসছিল ৯৯ বছর বা ১০০ বছরের বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা টিকা নিচ্ছেন। ভারতে এতদিনে প্রবীণদের টিকাকরণ শুরু হয়েছে। আর শুরুর দিনকয়েকের মধ্যেই নজির গড়েছেন একশো বছর বয়সী শশীকলা জোশী। টিকার ইঞ্জেকশন নেওয়ার জন্যই যে শুধু তাঁর নাম ছড়িয়েছে এমনটা নয়, শশীকলা রীতিমতো পায়ে হেঁটে টিকাকরণ কেন্দ্রে গিয়ে ডোজ নিয়েছেন। সুস্থ শরীরে হেঁটেই বাড়ি ফিরে এসেছেন।

মুম্বইয়ের বাসিন্দা শশীকলকা আগামী সেপ্টেম্বরে ১০১ বছরে পড়বেন। এখনও শরীর নুব্জ হয়নি। হাতে-পায়ে বেশ জোর। দিব্যি হেঁটেচলে বেড়ান। হুইলচেয়ারের ধার ধারেন না। ঘরের কাজকর্মও করেন। রান্নাও করেন নিয়ম করে।

বৃদ্ধার ৭৫ বছরের মেয়ে মীনাক্ষী বলেছেন, তাঁর মা বরাবরই জীবনযাত্রায় সংযম মেনে চলেছেন। শাকাহারী, খাবারও খান নিয়ম মেনে। প্রতিদিন রান্না করেন, নিজের হাতে ঘরের কাজ করেন। মায়ের কোনওরকম শারীরিক সমস্যা নেই বলেই জানিয়েছেন মীনাক্ষী।

রোজ নিয়ম করে খবর দেখেন শশীকলা, এমনটাই জানিয়েছেন তাঁর মেয়ে। টিকাকরণের সমস্ত বিধিনিষেধ খুঁটিয়ে জেনেছেন। টিকা সুরক্ষিত কিনা সে নিয়ে আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে কথাবার্তাও বলতেন নিয়মিত। মীনাক্ষী বলছেন, তাঁর মা বরাবরই অ্যাকটিভ, বয়সের কারণে কোনওরকম বাড়তি সুবিধা নিতে চাননি। নিজে নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন, পায়ে হেঁটে টিকাকরণ কেন্দ্র গিয়ে ডোজ নিয়ে এসেছেন। বৃদ্ধার এনার্জি দেখে উৎসাহ পেয়েছেন কেন্দ্রের বাকি বয়স্করাও।

৬০ বছরের ওপর বয়স্ক ও ৪৫ থেকে ৫৯ বছর বয়সী কো-মর্বিডিটির রোগীদের টিকাকরণ চলছে দেশজুড়ে। করোনা প্রতিষেধক পাওয়ার যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হওয়ায় ক্ষেত্রে কোন ধরনের শারীরিক সমস্যা ‘কো-মর্বিডিটি’ হিসেবে বিবেচনা করা যাবে, সে বিষয়েও সরকারি নির্দেশিকা জারি হয়েছে। জানানো হয়েছে, এ সংক্রান্ত ২০ দফা মাপকাঠি যার মধ্যে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, লিভার সিরোসিস, অ্যানিমিয়া, কিডনি-লিভারের অসুখ, রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস সহ অনের রোগের নাম রয়েছে। ডাক্তারের শংসাপত্র দেখিয়ে কো-মর্বিডিটির রোগীরা টিকা নেওয়ার জন্য তাঁদের নাম নথিভুক্ত করতে পারেন। আরোগ্য সেতু অ্যাপ ও কোউইন ২.০ অনলাইন পোর্টালে সচিত্র পরিচয়পত্র দেখিয়ে নাম নথিভুক্ত করতে হবে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More