শ্রীনগরে বিএসএফ জওয়ানদের গুলি করে অ্যাম্বুল্যান্সে পালিয়েছিল জঙ্গিরা, ধরা পড়ল পাঁচজন

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে, এই পাঁচ জন কোনও নির্দিষ্ট জঙ্গি সংগঠনের না হলেও বিভিন্ন গোষ্ঠীর হয়ে কাজ করে। কোথায় হামলা চালাতে হবে তার ছক কষা, অস্ত্রশস্ত্রের যোগান দেওয়া, টাকা পৌঁছে দেওয়া, স্থানীয়দের থেকে খবর জোগাড় করা, সেনা কনভয়ে নজর রাখা ইত্যাদি সব কাজই করে এই হ্যান্ডলাররা।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জম্মু-কাশ্মীরের পান্ডাচে বিএসএফ জওয়ানদের উপর কারা হামলা চালিয়েছিল তার খোঁজ পেল পুলিশ ও গোয়েন্দা অফিসাররা। জঙ্গি সংগঠনগুলির সঙ্গে জড়িত এমন পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে যারা উপত্যকায় জঙ্গিদের ‘হ্যান্ডলার’ হিসেবে কাজ করে। পান্ডাচ হামলার ষড়যন্ত্রের মূলে ছিল এরাই। বিএসএফের টহলদারি ভ্যানে হামলা চালানোর পরে জঙ্গিদের অ্যাম্বুল্যান্সে করে পালাতে সাহায্যও করে এই হ্যান্ডলাররা।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে, এই পাঁচ জন কোনও নির্দিষ্ট জঙ্গি সংগঠনের না হলেও বিভিন্ন গোষ্ঠীর হয়ে কাজ করে। কোথায় হামলা চালাতে হবে তার ছক কষা, অস্ত্রশস্ত্রের যোগান দেওয়া, টাকা পৌঁছে দেওয়া, স্থানীয়দের থেকে খবর জোগাড় করা, সেনা কনভয়ে নজর রাখা ইত্যাদি সব কাজই করে এই হ্যান্ডলাররা। কাশ্মীরের নানা জায়গা থেকে এই পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত মে মাসে জম্মু-কাশ্মীরের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগর থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে গান্দেরওয়াল জেলার পান্ডাচে দুই বিএসএফ জওয়ানের উপর হামলা চালায় জঙ্গিরা। এলোপাথাড়ি গুলিতে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন রাণা মণ্ডল ও জিয়াউল হক নামে বিএসএফের দুই কনস্টেবল। তাঁরা ৩৭ নম্বর ব্যাটেলিয়নের সদস্য ছিলেন। হামলার পরে জওয়ানদের আগ্নেয়াস্ত্র লুঠ করে পালায় জঙ্গিরা।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত পাঁচজন ছিল ওই হামলার মূলে। তাদের থেকে বিএসএফ জওয়ানদের থেকে লুঠ করে নেওয়া আগ্নেয়াস্ত্রও উদ্ধার হয়েছে। দুটি মোটরবাইক ও দুটি অ্যাম্বুল্যান্সও পাওয়া গিয়েছে। পুলিশের দাবি, এই অ্যাম্বুল্যান্সে চাপিয়েই জঙ্গিদের কাশ্মীরের নানা জায়গায় পৌঁছে দেয় এই হ্যান্ডলাররা। অস্ত্র পাচারের কাজও হয়। তদন্তকারীরা জানাচ্ছেন, জাদিবল, শ্রীনগর, হাতিগম, বিজবেহরাতেও হামলার সঙ্গে জড়িত এই পাঁচজন।

শ্রীনগরে গতমাসেই সেনা এনকাউন্টারে খতম হয়েছে তিন জঙ্গি। নিহত জঙ্গি সাকিব বশির খান্ডে, উমর তারিক বাট ও জুবেইর আহমেদ শেখ পাম্পোরের দ্রাংবালের বাসিন্দা। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জঙ্গি কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। সাকিব পাম্পোরের জম্মু-কাশ্মীর ব্যাঙ্কে রক্ষীর অস্ত্র ছিনতাইয়ের চেষ্টা ছাড়াও ওই এলাকার যুবকদের জঙ্গি দলে যোগ দিতে উৎসাহ দিত।

গত মাসেই  জম্মুতে পাক সীমান্তের কাছে ২০ মিটার দীর্ঘ সুড়ঙ্গ আবিষ্কার করেছে বিএসএফ। নির্মীয়মান অবস্থায় সুড়ঙ্গটি খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। সাম্বা জেলার বাসান্তর এলাকায় আন্তর্জাতিক সীমান্তের কাছে ভারতীয় ভূখণ্ডে ২০ মিটার দীর্ঘ এবং ৩-৪ ফুট প্রশস্ত এই সুড়ঙ্গটি জঙ্গি অনুপ্রবেশের জন্যই বানানো হচ্ছিল বলে ধারণা। অস্ত্র ও মাদক পাচারের জন্যও ওই সুড়ঙ্গ ব্যবহারের পরিকল্পনা ছিল বলে মনে করছে পুলিশ। ওই সুড়ঙ্গ থেকে পাকিস্তানের গুলজার সীমান্ত পোস্টের দূরত্ব ৭০০ মিটার। মাটি ফেলে সুড়ঙ্গটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এলাকায় আর কোনও গোপন সুড়ঙ্গ রয়েছে কি না, ভারতীয় কমান্ডারদের তা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন বিএসএফের ডিরেক্টর জেনারেল রাকেশ আস্থানা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More