নাগরিকত্ব আইন খারিজ করা উচিত সুপ্রিম কোর্টের, মত অমর্ত্যর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ভারতের সংবিধানকে লঙ্ঘন করেছে বলে মনে করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। বুধবার বেঙ্গালুরুতে ইনফোসিসের একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে অধ্যাপক সেন বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের উচিত এই আইন খারিজ করে দেওয়া। এটা অসাংবিধানিক।”

পাকিস্তান, বাংলাদেশের মতো প্রতিবেশী দেশগুলিতে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার সংখ্যালঘুদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়ার ব্যাপারে শীতকালীন অধিবেশনে সংসদের দুই কক্ষেই নাগরিত্ব সংশোধনী বিল পাশ করে সরকার। তারপর রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সই করার সেটি আইনে পরিণত হয়। অমর্ত্য সেন এদিন বলেন, “মানবাধিকারের সঙ্গে জড়িত বিষয়গুলিকে এ ভাবে ধর্মীয় ভাবে ভাগ করা যায় না।”

তিনি আরও বলেন, “ধর্মের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে বিভাজন কোনওভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। তা ভারতীয় সংবিধানের ভাবধারাকেই আঘাত করে।” তবে পড়শি দেশে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার হওয়া সংখ্যালঘুদের প্রতি সমবেদনা দেখানো উচিত বলে তিনি মনে করেন। তাঁর কথায়, “ধর্ম ব্যতিরেকে সমস্ত নিপীড়িত মানুষের জন্যই এটা করা উচিত।” ধর্মীয় নিপীড়নের পাশাপাশি অন্যান্য ইস্যুগুলির দিকেও নজর দেওয়া উচিত বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: বৈদিক গণিতের বাস্তব ভিত্তি নেই, শিক্ষায় খারাপ প্রভাব ফেলছে, বললেন অর্মত্য সেন


২০১৪ সালে প্রথম নরেন্দ্র মোদী সরকার আসার পরই নালন্দা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদকে। তারপর নোটবন্দি থেকে দেশের অর্থনীতির হাল–একাধিক বিষয়ে কেন্দ্রকে চড়া সুরে আক্রমণ করেছেন তিনি। পাল্টা আক্রমণ শানাতে গিয়ে বিজেপি নেতারা তাঁর নোবেল পাওয়ার যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন। এবার নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়েও সরব হলেন অমর্ত্য।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More