সংক্রমণ কমছে? ৯০ হাজার থেকে কমে এখন ৩৮ হাজারে নেমেছে দৈনিক পজিটিভ কেস

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের ৪০ হাজারের নীচে নামল দৈনিক সংক্রমণ। পরিসংখ্যান অনুযায়ী গতকাল আক্রান্ত হয়েছিলেন ৪৪ হাজার। আর আজ আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার। একধাক্কায় প্রায় ৬ হাজার কমেছে দৈনিক সংক্রমণ। একসময় ভারতে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ৯০ হাজারেরও বেশি। তবে তা নেমেওছিল ৩০ হাজারের নীচে। এখন দেশে দৈনিক সংক্রমণ ৪০ হাজারের কম।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, আজ ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৯১,৭৭,৮৪০। এ যাবৎ দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১,৩৪,২১৮ জনের। কোভিড সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৬,০৪,৯৫৫ জন। ভারতে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৪,৩৮,৬৬৭।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭,৯৭৫ জন। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৪৮০ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২,৩১৪ জন। গতকালের তুলনায় অ্যাকটিভ কেস কমেছে ৪৮১৯। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিড টেস্ট করা হয়েছে ১০,৯৯,৫৪৫ জনের। ভারতে এখন সুস্থতার হার ৯৩.৭৬ শতাংশ। আর মৃত্যুহার ১.৪৬ শতাংশ।

মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লি, এই ছয় রাজ্যেই ক্রমান্বয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারতের কোভিড পরিসংখ্যানে প্রথম থেকে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কর্নাটক। তৃতীয় স্থানে অন্ধ্রপ্রদেশ। চতুর্থ স্থানে তামিলনাড়ু। পঞ্চম স্থানে উত্তরপ্রদেশ এবং ষষ্ঠ স্থানে দিল্লি। রাজধানী শহরের ক্রমবর্ধমান কোভিড পরিস্থিতি বিশেষজ্ঞদের চিন্তায় ফেলেছে।

মহারাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭,৮৪,৩৬১। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৪৬,৬৫৩ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১৬,৫৪,৭৯৩ জন। মহারাষ্ট্রে অ্যাকটিভ কেস ৮২,৯১৫।

কর্নাটকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮,৭৪,৫৫৫। মৃত্যু হয়েছে ১১,৬৭৮ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৮,৩৮,১৫০ জন। কর্নাটকে অ্যাকটিভ কেস ২৪,৭২৭।

অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৮,৬২,৭৫৮ জন। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৬৯৪৮ জনের। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৮,৪২,৪১৬ জন। অন্ধ্রপ্রদেশে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১৩,৩৯৪।

তামিলনাড়ুতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৭১,৬১৯। কোভিড সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১১,৬২২ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭,৪৭,৭৫২ জন। তামিলনাড়ুতে অ্যাকটিভ কেস ১২,২৪৫।

উত্তরপ্রদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫,২৮,৮৩৩। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৭৫৮২ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪,৯৭,৪৭৫ জন। উত্তরপ্রদেশে অ্যাকটিভ কেস ২৩,৭৭৬।

দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৩৪,৩১৭। সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৮৫১২ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪,৮৮,৪৭৬ জন। রাজধানী শহরে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৩৭,৩২৯।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More