প্রিয়া সিনেমা হলে মিলবে ভ্যাকসিন! ছবি দেখা ও টিকা দেওয়ার অভিনব উদ্যোগ কর্তৃপক্ষের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রথ দেখা আর কলা বেচা— এ তো চালু প্রবাদ। কিন্তু তাই বলে টিকা নিতে এসে সিনেমা দেখা! এ কেমন কথা? শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই হতে চলেছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী একমাসের মধ্যেই আস্ত প্রেক্ষাগৃহ পরিণত হবে টিকাকরণ কেন্দ্রে। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলে বসে অপেক্ষার প্রহর কাটবে হইহই করে। চলবে সিনেমা। রুপোলি পর্দার বিনোদন দেখে ভ্যাকসিন নিয়ে তারপর ঘরে ফেরা। অভিনব এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে খোদ কলকাতায়। নেপথ্যে প্রিয়া সিনেমা হল কর্তৃপক্ষ। প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার অরিজৎ দত্ত ইতিমধ্যে তাঁর পরিকল্পনার বিষয়টি ফাঁস করেছেন।

কীভাবে এই প্ল্যান মাথায় এল? অরিজিৎ জানান, নিজে ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে তিনি বেজায় দুর্ভোগে পড়েন। বাইরে ঠা ঠা রোদ। আর মধ্যেই টিকা নিতে ভিড় করেছেন অনেক বৃদ্ধবৃদ্ধা। বসে অপেক্ষা করার সুযোগও নেই। ঠিক তখনই নিজের সিনেমা হলকে এই কাজে লাগানোর কথা চিন্তা করেন তিনি।

পরিকাঠামো সাজানো হল। কিন্তু তাতেই তো সব নয়। ভ্যাকসিন মিলবে কোত্থেকে? সেই সময় ত্রাতা হিসেবে হাজির হন পরিচালক-প্রযোজক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। তিনিই বেসরকারি হাসপাতাল মেডিকার সঙ্গে অরিজিতের যোগাযোগ করিয়ে দেন। পরিকল্পনার কথা জানানোর পর প্রিয়ার মালিকের কথায় সায় দেয় মেডিকা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এক্ষুনি শুরু না করে দিনকয়েক অপেক্ষা করতে বলা হয়। মেডিকা সূত্রে খবর, হাতের ভ্যাকসিন ইতিমধ্যে ফুরিয়ে গেছে। ফের ভ্যাকসিন আসছে। তা হাতে এলেই প্রিয়া সিনেমার অন্দরে চালু হবে টিকাকরণ কর্মসূচি।

অভিজিতের বক্তব্য, আপাতত প্রেক্ষাগৃহের গ্রাউন্ড ফ্লোরটিকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজে লাগানো হবে। অহেতুক লাইন দেওয়ার প্রয়োজন নেই। সিনেমা হলের ভেতরেই সকলে অপেক্ষা করতে পারেন। শীতাতপনিয়ন্ত্রিত হলঘরে গরমে কষ্ট পেতেও হবে না। চলবে সিনেমা। তারপর প্রত্যেকের নাম একে একে ডাকা হলে তাঁরা ভ্যাকসিন বাড়ি যেতে পারেন।

সিনেমা দেখতে কি আলাদা করে টাকা দিতে হবে? অরিজিতের উত্তর, দর্শকদের থেকে অর্থ নেওয়া হবে বটে। কিন্তু সেটা নামমাত্র। সামান্য টাকার বিনিময়ে ভ্যাকসিন নেওয়া ও সিনেমা দেখা— দুইয়েরই সুযোগ রয়েছে। আর আগামী কয়েকদিনের মধ্যে যদি এটা বাস্তবায়িত হয়, তাহলে এমন উদ্যোগ বিশ্বে প্রথম হতে চলেছে। দাবি অরিজিতের।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More