ভারতে প্রবলভাবে অনিশ্চিত মহিলা যুব ফুটবল বিশ্বকাপের আসর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মোটামুটি প্রস্তুতি ভালই এগিয়েছিল। কিন্তু আচমকা একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে, অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা যুব বিশ্বকাপ ফুটবল ভারতে না-ও হতে পারে।

ফিফা প্রথম যে দিনটি দিয়েছিল তাতে বলা ছিল, চলতি বছরেই আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল এই মেগা ইভেন্টের। ডিসেম্বরে হবে সেই মতো ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে জোর কাজও চলতে থাকে। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে সেটি পিছিয়ে আগামী বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ মার্চ হওয়ার কথা ছিল।

পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক না হওয়ায় চাপে পড়ে গিয়েছে ফেডারেশন। তারা এর মধ্যেই ফিফাকে জানিয়ে দিয়েছে, ভারতে যেভাবে করোনার প্রভাব বাড়ছে, তাতে তারা এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করার ঝুঁকি নিতে পারবে না। দেশের পাঁচটি কেন্দ্রে হওয়ার কথা ছিল এই টুর্নামেন্ট। ফেডারেশনের এক শীর্ষ কর্তা জানিয়েছেন, আগে তো মানুষের প্রাণ, তারপর সবকিছু। আমরা এই পরিস্থিতিতে কী করে বলব মেগা ইভেন্ট সংঘটন করবই। করোনার কারণে আমাদের দেশের হাল ভাল নয়, তাই আমরা ফিফাকে চিঠি দিয়ে রেখেছি বিষয়টি বিচার করার জন্য।

কর্তাটির আরও বক্তব্য, এর মধ্যে যদি করোনার প্রতিষেধক বাজারে এসে যায়, তা হলেও করা যাবে না। কারণ লকডাউনের জন্য স্টেডিয়ামগুলির কাজ থমে গিয়েছে বহুদিন ধরে। ফের কাজ চলবে কবে আমাদের জানা নেই!

এআইএফএফ থেকে যদিও এখনও খবরটি প্রকাশ করা হয়নি। এই খবর দিনের আলোয় নিয়ে এসেছে ঘানার এক মহিলা ক্রীড়া সাংবাদিক জাকারিয়া আলি। তিনি জানিয়েছেন ট্যুইট করে যে, ‘‘অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপ ফুটবল হতে পারে ঘানাতে, কারণ ভারত হয়তো ইভেন্ট সংঘটন করবে না।’’

ফিফার পক্ষ থেকেও সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি, তবে ফিফার ওয়ার্কিং গ্রুপ বিকল্প ভেন্যুর ব্যবস্থা করার কাজ শুরু করে দিয়েছে। শোনা যাচ্ছে ফ্রান্স এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে আগ্রহী। এমনকি ঘানাও নাকি দৌড়ে আছে।
এর আগে অনুর্ধ্ব ১৭ যুব বিশ্বকাপের আয়োজন সাফল্যের সঙ্গে করেছিল ভারত। তারপরেই ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো ঘোষণা করেছিলেন, মহিলাদের যুব বিশ্বকাপও হবে ভারতে। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতির জটিলতায় সেটিও অনিশ্চিত হতে শুরু করেছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More