আমার পিছনে সিবিআই লেলিয়ে দিয়েছে, মাথা নত করব না: ঠাকুরনগরে অভিষেক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত কয়েক দিনে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা নারুলা ও শ্যালিকা মেনকা গম্ভীরকে সিবিআইয়ের জেরা নিয়ে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এই ঘটনার প্রতিবাদ করে বলেছেন, ‘আমার বাড়ির বউ কয়লা চোর?’ এবার সেই সিবিআই প্রসঙ্গ নিয়ে ফের একবার সরব হলেন অভিষেক। বিষ্যুদবার ঠাকুরনগরের সভা থেকে জানালেন, তাঁর পিছনে সিবিআই লেলিয়ে দিলেও মাথা নত করবেন না তিনি।

এদিন ঠাকুরনগরের সভায় দাঁড়িয়ে অভিষেক বলেন, “আমার পিছনে সিবিআই লেলিয়ে দিয়েছে। আমি বলছি সিবিআই, ইডি, ইনকাম ট্যাক্স, আরও যারা যারা আছে, সব আমি পিছনে লাগান। কিন্তু আমি মাথা নত করব না। জেনে রাখুন আমার গলা কেটে দিলেও সেই কাটা গলা থেকে জয় বাংলা, জয় হিন্দ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জিন্দাবাদ বেরবে।”

কয়েক দিন আগে এই ঠাকুরনগরে এসেই মতুয়াদের নাগরিকত্বের প্রশ্নে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন, টিকাকরণ শেষ হলেই নাগরিকত্বের প্রক্রিয়া শুরু হবে। সেই প্রসঙ্গে টেনে এনে অভিষেক বলেন, “১৩০ কোটির ভারতবর্ষে টিকাকরণ শেষ হতে তো ৯ বছর লেগে যাবে। আর মোদী, শাহ আপনাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কে? আপনাদের কি ভোটার কার্ড নেই? মতুয়ারা অবৈধ হলে তো নরেন্দ্র মোদী অবৈধ, অমিত শাহ অবৈধ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আপনাদের স্বীকৃতি দিয়েছে। বহিরাগতদের ঝেঁটিয়ে বিদায় দিতে হবে। জোর করে চাপিয়ে দেওয়ার রাজনীতি চলবে না।”

আয়ুষ্মান ভারত থেকে শুরু করে অনুপ্রবেশ প্রসঙ্গে মোদী সরকারকে আক্রমণ করেন যুব তৃণমূল সভাপতি। ক্ষমতা থাকলে অরুণাচল প্রদেশ থেকে চিনকে বের করার চ্যালেঞ্জ জানান তিনি। মমতা যতদিন বেঁচে রয়েছেন ততদিন বাংলার মানুষের কেশাগ্র কেউ স্পর্শ করতে পারবে না বলেই জানিয়েছেন অভিষেক।

আহমেদাবাদের মোতেরাতে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামের নামকরণ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অভিষেক। বলেন, ‘জীবিত অবস্থায় কারও নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ হয় শুনেছেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি তফসিলি সম্প্রদায়ের। তাঁকে নিয়ে এসে প্রধানমন্ত্রীর নামে স্টেডিয়ামের উদ্বোধন করা হচ্ছে। দলিত, সংখ্যালঘু, তফসিলিদের উপর অত্যাচার করছে বিজেপি।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ২৫০-র বেশি আসন নিয়ে ফের তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসবে বলেই এদিন ফের দাবি করেন অভিষেক। জনতার উদ্দেশে তিনি স্লোগান তোলেন, “মোদী আসেন মোদী যায়, বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More