শিয়ালদার পরে হাওড়া, করোনা আক্রান্ত চালক-গার্ডরা, বাতিল একগুচ্ছ লোকাল ট্রেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সুনামির মতো আছড়ে পড়েছে বাংলায়। বাড়তে থাকা সংক্রমণ ভয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গণপরিবহনগুলি থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা জোরদার হচ্ছে। করোনার কোপ পড়েছে ট্রেন পরিষেবাতেও। শিয়ালদা শাখায় ইতিমধ্যেই ২৬টি লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। এবার হাওড়াতেও সেই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। চালক ও গার্ডরা করোনা আক্রান্ত হয়ে পড়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পূর্ব রেল।

হাওড়া স্টেশনে এর মধ্যে ২৪ জন গার্ড করোনা আক্রান্ত হয়েছে। সংক্রমণ ধরা পড়েছে চালকদের শরীরেও। গার্ডের অভাবে হাওড়া মেইন লাইন ও কর্ড লাইনে একাধিক ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। হাওড়া স্টেশন থেকে প্রতিদিন পূর্ব রেলে প্রায় ১৬৯ জোড়া লোকাল ট্রেন যাতায়াত করে। চালক ও গার্ডরা কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় পরিষেবায় প্রভাব পড়েছে। রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় ১৫ জোড়া লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে।

রেলের দক্ষিণ-পূর্ব শাখায় এখনও অবধি পরিষেবা স্বাভাবিক আছে বলে জানা গিয়েছে। তবে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের খড়্গপুর ডিভিশনে মোট ৮ জন চালক ও ৮ জন গার্ডের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। যদিও হাওড়-খড়্গপুর শাখায় এখনও অবধি কোনও লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়নি। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ জানিয়েছেন, হাওড়া-খড়্গপুর শাখায় প্রতিদিন প্রায় ১৮৬ জোড়া লোকাল ট্রেন চলে। এই ডিভিশনের মালগাড়ির চালক, গার্ড মিলিয়ে মোট ৩৪ জন করোনা আক্রান্ত। পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে গেলে এই ডিভিশনেও ট্রেন বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

বস্তুত, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর পূর্ব রেলের চারটি ডিভিশনেই গার্ড, চালক ও রেলকর্মীদের অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শিয়ালদা ডিভিশনে ১৪ জন গার্ডের করোনা ধরা পড়েছে। গার্ডের অভাবে এই ডিভিশনের বিভিন্ন শাখায় আপ ও ডাউন মিলিয়ে ২৬টি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে।

পূর্ব রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, সংক্রমণের ভয়ে গত ১০ দিনে লোকাল ট্রেনে যাত্রী সংখ্যা কমেছে। রেল যাত্রীদের বার বার করে মাস্ক পরতে বলা হচ্ছে। স্টেশনে মাস্ক ছাড়া কাউকে ঘুরতে দেখলেই ৫০০ টাকা ফাইন নেওয়া হবে। রেলের টিকিট পরীক্ষক ও আরপিএফ জওয়ানরা যাত্রীদের সচেতন করছেন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More