তারা অঙ্গে আজও মা কালীর আরাধনা তারাপীঠে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তারাপীঠে আজও চলছে মা তারার পুজো। রাতভর পুজো হওয়ার পর সকাল থেকেও ব্যস্ততা রয়েছে চরমে। গতকাল দীপান্বিতা অমাবস্যার এই পুজো দেখতে মন্দির চত্বরে ভিড় করেছিলেন পূণ্যার্থীরা। আজও অমাবস্যা তিথি থাকার কারণে মহাসমারোহে হয়েছে পুজো।

করোনা আবহে যাতে সমস্ত রকম স্বাস্থ্যবিধি মানা হয় এবং ভক্তদের ভিড় সামাল দিতে তৎপর রয়েছে পুলিশ ও তারাপীঠ মন্দির কমিটির সদস্যরা। মাস্ক ছাড়া কাউকেই মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। নিরাপত্তার জন্য মন্দির চত্বরের চতুর্দিকে বসানো হয়েছে সিসিটিভি। পুলিশ ছাড়াও মন্দির চত্বরে মোতায়েন রয়েছেন বেসরকারি এজেন্সির নিরাপত্তারক্ষীরা। কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন বীরভূম পুলিশের মহিলা পুলিশকর্মীরাও।

গতকালের মতো আজও পঞ্চব্যঞ্জন সহকারে তারাপীঠে ভোগ নিবেদন করা হয়েছে দেবীকে। যেহেতু তন্ত্র মতে ‘মা তারা’-র আরাধনা করা হয় তাই বিশেষ উপকরণ হিসেবে গতকাল ভোগের মধ্যে ছিল শোল মাছ পোড়া। এই উপকরণ ছাড়া ভোগ নিবেদন করা যায় না। নিশিপুজোর পর ফের একবার ভোগ নিবেদন করা হয় মা তারাকে। গতকালের মতো আজ ভোরেও মায়ের মঙ্গল আরতি হয়েছে। তার পর থেকেই পুজো দেওয়ার জন্য ভক্তদের ভিড় জমতে শুরু করেছে মন্দির চত্বরে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ভক্ত সমাগম ৷

গতকাল নিশিতে মা তারাকে শ্যামা রূপে পুজো করা হয়েছে। সোনার গয়না আর রাজবেশে সাজানো হয় মাকে। কালীপুজোর দিন নিশিতে এই বিশেষ পুজো দেখতে দূরদূরান্ত থেকে মানুষের ভিড় জমে তারাপীঠে। এবার করোনা আবহে হাজার কড়াকড়ির মধ্যেও নিয়ম মেনেই তারাপীঠ মন্দিরে এসেছেন ভক্তরা। গতকাল তারাপীঠের মহাশ্মশানে তন্ত্র সাধনাও করেছেন বহু সাধু ও তান্ত্রিক। অমাবস্যা তিথি শুরুর পরই মহাশ্মশানে জ্বলে উঠেছিল অসংখ্য হোমকুণ্ড। তবে করোনা সংক্রমণ রুখতে এ বার বিশেষ ভাবে সতর্ক পুলিশ, প্রশাসন। সব রকম সাবধানতা অবলম্বন করছে বীরভূম জেলা পুলিশ।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More