কেন্দ্রের অসংবেদনশীলতার জন্যই দিল্লিতে এই পরিস্থিতি, টুইটে মোদী সরকারকে দুষলেন মমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিল্লিতে কৃষক-পুলিশ সংঘর্ষে পরিস্থিতি উত্তপ্ত। লালকেল্লায় উড়েছে কৃষক সংগঠনের পতাকা। সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছে এক কৃষকের। আহত হয়েছেন অনেক পুলিশকর্মীও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ, কাঁদানে গ্যাস ছুড়তে হয়েছে পুলিশকে। নিরাপত্তা নিয়ে তড়িঘড়ি বৈঠক ডেকেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কিন্তু দিল্লিতে এদিন এই ঘটনার জন্য কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী সরকারকেই দুষলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দিল্লিতে এদিনের ঘটনা নিয়ে টুইট করে নিজের মনোভাব তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, “দিল্লির রাস্তায় যে উদ্বেগজনক ও দুঃখজনক ঘটনা ঘটেছে তাতে খুবই ব্যথা পেয়েছি। কেন্দ্রের অসংবেদনশীল আচরণ ও আমাদের কৃষক ভাই-বোনদের প্রতি উদাসীনতা এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী।”

এখানেই থেমে থাকেননি মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, “প্রথমে এই আইনগুলি কৃষকদের সঙ্গে কথা না বলেই পাশ করা হয়েছে। আর তারপরে দেশজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ ও গত দু’মাস ধরে দিল্লি সীমান্তে আন্দোলনের পরেও এই সমস্যা সমাধানে অনীহা দেখা গিয়েছে সরকারের। কেন্দ্রের উচিত কৃষকদের সঙ্গে আলোচনা করে এই আইন প্রত্যাহার করে নেওয়া।”

মোদী সরকার যেদিন থেকে সংসদে তিনটি কৃষি আইন পাশ করেছিল সেদিন থেকেই তার বিরোধিতা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। একদিকে সংসদে যখন তৃণমূল সাংসদদের অবস্থান বিক্ষোভ করতে দেখা গিয়েছে, অন্যদিকে তখন বিভিন্ন সভা থেকে বারবার এই আইনের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছেন তিনি ও তাঁর দল কৃষকদের পক্ষে রয়েছে।

দিল্লি সীমান্তে যখন কৃষকরা আন্দোলন করছেন, তখনও তৃণমূলের সমর্থন তাদের কাছে পৌঁছেছে। কৃষকদের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছে তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। ফোনে মমতা কথা বলেছেন কৃষক নেতাদের সঙ্গে। তাঁদের আশ্বস্ত করেছেন তাঁর দল কৃষকদের সঙ্গে রয়েছে ও আন্দোলনে সম্পূর্ণ সমর্থন করছে। মোদী সরকারকে এই আইন প্রত্যাহারের দাবিও করেছেন তিনি। ফের সেই দাবি এদিন শোনা গেল তৃণমূল নেত্রীর গলায়।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More