রাজ্যে দৈনিক আক্রান্ত কমছে, সংক্রমণের হারও নিম্নমুখী, আশার আলো দেখছে স্বাস্থ্য দফতর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড গ্রাফ ক্রমেই নিম্নমুখী বাংলায়। রাজ্যে সংক্রমণের হারও কমছে। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা গত কয়েকদিন ধরেই কমেছে। স্বাস্থ্য দফতরের শুক্রবারের বুলেটিনে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮৮৮। গতকালও পাঁচ হাজারের বেশি নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। দৈনিক মৃত্যু ছিল ৯০ জনের বেশি। আজকের বুলেটিনে দেখা গেছে করোনায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৮৯ জনের। রাজ্যে মৃত্যুহারও ধীরে ধীরে কমছে বলে আশা করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

স্বাস্থ্য দফতরের তথ্য বলছে, কোভিড পজিটিভিটি রেট তথা সংক্রমণের হার আগের থেকে কমেছে। দুদিন আগেও রাজ্যে সংক্রমণের হার ছিল ১১ শতাংশের বেশি, আজকের হিসেবে দেখা গেছে কোভিড পজিটিভিটি রেট ৭ শতাংশে নেমে গেছে। তবে উত্তর ২৪ পরগনায় কোভিড পজিটিভিটি রেট মারাত্মক বেশি, প্রায় ৪৯%, যা চিন্তার কারণ। বাকি জেলাগুলিতে সংক্রমণের হার নিম্নমুখী।

রাজ্যে এতদিন কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠছিল, এখন কোভিড জয়ীদের সংখ্যা স্বস্তি দিয়েছে। ১৪ লাখের বেশি মানুষ করোনা সারিয়ে সেরে উঠেছেন। রাজ্যে এখন ডিসচার্জ রেট ৯৭.৮০%। হাসপাতালে ভর্তি কোভিড সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও কমছে। একদিনে ভাইরাস সক্রিয় রোগী ধরা পড়েছে পাঁচশো জনেরও কম।

কোভিড টেস্ট বেড়েছে রাজ্যে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, রিয়েল টাইম আরটি-পিসিআর টেস্টের পাশাপাশি র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টেও জোর দিতে হবে। যত তাড়াতাড়ি করোনা রোগীদের শণাক্ত করে চিকিৎসা শুরু হবে ততই দ্রুত সংক্রমণের হার কমবে। আজকের হিসেবেই ৬২ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। রাজ্যে এখনও অবধি ১ কোটি ৩১ লক্ষ স্যাম্পেল টেস্ট হয়েছে।

কলকাতায় দৈনিক সংক্রমণও পাঁচশোর নীচে। তবে উত্তর ২৪ পরগনায় একদিনে সংক্রমিতের সংখ্যা ৭৯২। পাহাড়ি জেলাগুলির মধ্যে দার্জিলিং ও জলপাইগুড়িতে এখনও দৈনিক সংক্রমণ তিনশোর কাছাকাছি রয়েছে। অন্যদিকে হাওড়া ও হুগলিতেও নতুন সংক্রমণ সাড়ে তিনশোর বেশি।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More