ভোট ঘোষণা হতেই পিকের ‘পেপ টক’,‘বাংলার মানুষ জবাব দিতে প্রস্তুত, মিলিয়ে নেবেন..’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এর আগে অন্য রাজ্যে শাসক বা বিরোধী দলের হয়ে তিনি যখন পেশাদার ভোট কুশলীর কাজ করেছেন, প্রশান্ত কিশোর এক প্রকার ছিলেন মেঘনাদের মতো। আড়াল থেকে ঘুঁটি সাজাতেন। বাংলার ভোটেই সম্ভবত প্রথম বার প্রশান্ত কিশোরকেও কার্যত প্রচারে নামতে হয়েছে। ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে তিনি একবার টুইট করে দাবি করেছিলেন, বাংলায় বিজেপি দুই অঙ্কের সংখ্যা টপকাতে পারবে না। তার দু’মাস পর শনিবার, অর্থাৎ ভোট ঘোষণার পরদিন ফের টুইট করলেন পিকে।

প্রশান্ত লিখেছেন, গণতন্ত্রের অন্যতম লড়াই এ বার হবে পশ্চিমবঙ্গে। আর বাংলার মানুষ সঠিক বার্তা নিয়ে জবাব দিতে প্রস্তুত। বাংলা তাঁর নিজের মেয়েকেই চায়। তিনি এও বলেছেন, ২ মে ভোটের ফল ঘোষণার দিন তাঁর আগের টুইট মিলিয়ে নিতে। মানে বিজেপি দুই অঙ্কের সংখ্যা টপকাবে না।

এটা ঠিক যে গত পঞ্চাশ বছরে বাংলায় যে যখন জিতেছে দু’শ পার করে দিয়েছে। এক মাত্র ব্যতিক্রম ঘটেছিল ২০০১ সালে। সে বার বামেরা ১৯৯ টি আসনে জিতেছিলেন। প্রশান্ত হয়তো বোঝাতে চাইছেন, এ বারও সে রকমই হবে। এর আগে এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, বাংলার নির্বাচনে এ বার বিজেপি-তৃণমূল মেরুকরণ ঘটে গিয়েছে। অর্থাৎ তিনি বোঝাতে চাইছেন, তৃণমূল এবারও দু’শ টপকে যাবে।

যদিও প্রশান্তের এই টুইটকে নিতান্তই পেপ টক হিসাবে দেখছেন অনেকে। তাঁদের মতে, অতীতের তামাম নির্বাচন আর এ বারের ভোটের মধ্যে আসমান জমিন ফারাক রয়েছে। ৭৭ সালের পর চারটি নির্বাচনে বাংলায় বামেদের প্রতিপক্ষ ছিল কংগ্রেস। কিন্তু সে সময়ে এআইসিসি পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে কখনও এতটা জোর দেয়নি যতটা এখন মোদী-অমিত শাহরা দিচ্ছেন। পরবর্তী কালে কংগ্রেস-তৃণমূল জোট বাংলায় তখনই সফল হয়েছে, যখন কেন্দ্রেও তারাই ক্ষমতায় ছিল। আবার ষোলো সালের ভোটে বাম, কংগ্রেস জোট হলেও দিল্লির তাকত তাদের সঙ্গে ছিল না। তা ছাড়া অতীতে এ ধরনের চরম মেরুকরণও কখনও বাংলায় ঘটেনি।

প্রশান্তের এই টুইট নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিজেপি মুখপাত্র সায়ন্তন বসু বলেছেন, “বাংলার নিজের মেয়ে বলে যাঁকে তুলে ধরা হচ্ছে, তাঁর সততার মুখোশ খসে পড়ে গিয়েছে। বাঙালি আবেগ দিয়ে কাটমানি, চাল চুরি, ত্রাণ চুরির মতো দুর্নীতি ঢাকার চেষ্টা হচ্ছে। মানুষ কি এতটাই বোকা!”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More