মাটির গন্ধ পাই, বিজেপি সরকার আসছেই: পিছাবনিতে শুভেন্দু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অমিত শাহ বাংলায় এসে বলে গেছেন, ইস বার, দোশো পার! পাল্টা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন একুশের ভোটে ২২১টি আসন পাবে তৃণমূল। যুব তৃণমূল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দুদিন আগে কুলপির সমাবেশ থেকে বলেছেন তৃণমূল কংগ্রেস ২৫০টি আসন পাবে!

আসন নিয়ে দাবি, পাল্টা দাবি যখনই এমন সপ্তমে পৌঁছেছে তখন বুধবার পিছাবনিতে রোড শো শুরুর আগে শুভেন্দু অধিকারী বললেন, বিজেপি সরকার আসছেই।

এদিন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের নেতা ছোট্ট বক্তৃতায় বলেন, “এই উত্তরবঙ্গ থেকে ঘুরে এলাম। আমি মাটির গন্ধ পাই। পশ্চিমবাংলায় বিজেপি সরকার হচ্ছেই নিশ্চিন্তে থাকুন।”

লবণ সত্যাগ্রহ আন্দোলনে অবিভক্ত মেদিনীপুরের এই জনপদ ঐতিহাসিক। ব্রিটিশদের হুমকির মুখে এখানকার জনতা গর্জে উঠে বলেছিল, পিছাবনি। অর্থাত্‍ পিছিয়ে আসব না। সেই থেকে এই জায়গার নাম পিছাবনি। এদিন সেই ইতিহাসের কথাও স্মরণ করিয়ে দেন শুভেন্দু।

শুভেন্দুর রোড শোয়ে তরুণ সমাজের জমায়েত ছিল এদিন চোখে পড়ার মতো। প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের আশ্বস্ত করে বলেন, “যারা একশো দিনের কাজের টাকা লুঠ করেছে, লক ডাউনে চাল চুরি করেছে, ১৫ মে-র পর তাদের তৃণমূলে নেওয়া হবে না। সেই সঙ্গে এও জানিয়ে দেন, বিজেপি বহুদলীয় গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। সব দল নিজেদের মতো রাজনীতি করুক সেটা চায়। কিন্তু যাঁরা মনে করবেন কাউকে কিছু করতে দেবেন না তাঁদের জন্য নিউটনের তৃতীয় সূত্র রয়েছে। প্রতিটি ক্রিয়ার সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া রয়েছে।

এদিন পিছাবনী থেকে কলকাতার কাঁকুড়গাছিতে সভা করেন শুভেন্দু। সেখানে রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের চিকিত্‍সক সেলের নেতা নির্মল মাজির বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ করেন তিনি। নির্মলের বিরুদ্ধে পুত্র ও পুত্রবধূকে বেআইনি নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে। এদিন শুভেন্দু বলেন, এক মন্ত্রী এখন কুকুরের ডায়ালিসিসের বদলে নিজের ছেলে-বউমার কথাও চিন্তা করছেন। ২৫ বছর বয়সে ডাক্তারদের শিক্ষক হয়েছে। তাঁর কাছে যে কেউ পড়লে আর বাঁচবে না!”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More