মমতাকে শুভেন্দুর ‘টিকা টিপ্পনি’, ক্রেডিট নিতে পারেননি বলে এখন বলছেন কেন্দ্র কম পাঠিয়েছে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তোলাবাজি, দুর্নীতি, পুলিশ রাজ, রাজনৈতিক অবস্থান বদল এসব নিয়ে তো তৃণমূলনেত্রী তথা প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে রোজই চাঁচাছোলা আক্রমণ শানাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। এদিন তাতে যোগ হল কোভিড টিকা!

শনিবার দেশজুড়ে শুরু হয়েছে কোভিডের টিকাকরণ। এ রাজ্যেও সেই কর্মসূচি শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর এদিন জেলা শাসকদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জেলা শাসকদের বলেছেন, কেন্দ্র খুব কম সংখ্যায় টিকা পাঠিয়েছে। রাজ্যে যে জনসংখ্যা রয়েছে, তার তুলনায় তা নিতান্তই কম। সব মানুষ যাতে টিকা পান তার ব্যবস্থা রাজ্য সরকার আগামী দিনে করবে। তবে দেখতে হবে, টিকাকরণ নিয়ে যেন কোনও গুজব না ছড়ায়।

বিকেলে চন্দ্রকোণা রোডে বিজেপির সভা থেকে তা নিয়েই টিপ্পনি কাটলেন শুভেন্দু। এদিন তিনি বলেন, “আমাদের চিকিত্‍সা বিজ্ঞানীরা অসাধ্যসাধন করেছেন। আর এই গোটা ব্যবস্থাপনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ক্রেডিট নিতে পারেননি বলে মুখ্যমন্ত্রী এখন বলছেন কেন্দ্র কম টিকা পাঠিয়েছে! ওটা আপনাকে ভাবতে হবে না।”

এদিনও তৃণমূলকে প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি বলে তোপ দাগেন বিজেপি নেতা। তাঁর কথায়, “২০০১-এর পর এখানে তৃণমূল পার্টিটা উঠে গেছিল। ২০০৩-এর পঞ্চায়েতে প্রার্থী পায়নি, ২০০৫-এর পুরসভায় রামজীবনপুর, ক্ষীরপাই, চন্দ্রকোণা-সহ এই তল্লাটে একটা আসন পায়নি। তারপর ২০১০-এ সবাই যখন ভাল ভাল জায়গার দায়িত্ব নিচ্ছে তখন আমি এই অঞ্চলের দায়িত্ব নিয়েছিলাম।” প্রসঙ্গত, সেবারই রামজীবনপুর দখল করেছিল তৃণমূল।

শুভেন্দু আরও বলেন, “তৃণমূল নেত্রীর মতো সুবিধাবাদী রাজনীতিবিদ সারা দেশে একজনও নেই। কংগ্রেস বড় করেছে আর বিজেপি আশ্রয় দিয়েছে।” তাঁর কথায়, “এদের থেকে আমায় বিশ্বাসযোগ্যতার সার্টিফিকেট নিতে হবে না।”

এদিনও পাথর, বালি, কয়লা, গরু চুরি নিয়ে ‘ভাইপো’কে উদ্দেশ করে তোপ দাগেন প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী। সেই সঙ্গে বামেদের উদ্দেশে শুভেন্দুর আবেদন, “লালঝাণ্ডা নিয়ে মিছিলে যাচ্ছেন যান কিন্তু ভোটটা পদ্মফুলে দিন। বিজেপির সরকার হলে তবেই গণতান্ত্রিক ভাবে পঞ্চায়েত, পুরসভায় ভোট হবে। আপনারাও প্রার্থী দিতে পারবেন।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More