ভাতা বাড়ছে পুর স্বাস্থ্যকর্মীদের, ঘোষণা রাজ্যের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা মোকাবিলায় অগ্রণী ভূমিকা নেওয়ার জন্য পুর স্বাস্থ্যকর্মীদের ভাতা বাড়ানোরই সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। রাজ্যের ১১৮টি পুরসভা ও ৭টি মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে কর্মরত প্রায় ৩০ হাজার অস্থায়ী স্বাস্থ্যকর্মীর ভাতা বাড়ানো হচ্ছে। আজ টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

স্থায়ী কর্মীর স্বীকৃতি, নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো, করোনা প্রতিরোধে নিরন্তর পরিশ্রমের জন্য উৎসাহ ভাতা, সুরক্ষা ব্যবস্থা সহ একগুচ্ছ দাবি তুলেছিল পশ্চিমবঙ্গ পুর-স্বাস্থ্যকর্মী ইউনিয়ন। তাঁদের দাবি ছিল, করোনা মোকাবিলায় পুরসভার স্থায়ী স্বাস্থ্যকর্মীদের থেকে কোনও অংশেই পিছিয়ে নেই তাঁরা। করোনা আবহে তাঁদের দায়িত্ব তাঁদের আরও বেড়েছে। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে কাজের চাপ। কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ভর্তি রোগীদের দেখভাল করা হোক বা আইসোলেশনে ভর্তি করোনা রোগীদের লালারস সংগ্রহ, পরীক্ষাগারে পৌঁছে দেওয়া, বাড়ি বাড়ি ঘুরে নমুনা সংগ্রহ ইত্যাদি সব দায়িত্বই পালন করতে হয়েছে তাঁদের। অথচ তাঁদের আর্থিক অবস্থার উন্নতি ও সামাজিক সুরক্ষার জন্য নির্দিষ্ট কোনও ব্যবস্থা হচ্ছে না। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত মাসিক পাঁচ হাজার টাকা করোনা-ভাতা দেওয়ার দাবিও তুলেছিলেন পুর স্বাস্থ্যকর্মীরা। জেলায় জেলায় এই নিয়ে বিক্ষোভও শুরু হয়েছিল।

পুর স্বাস্থ্যকর্মীদের দাবি মেনে করোনাকালীন তাঁদের ভূমিকার জন্য উৎসাহ ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। এ দিন রাজ্যের পুরমন্ত্রী বলেন, অতিমহামারীর মোকাবিলায় যে গুরুদায়িত্ব পালন করেছেন অস্থায়ী স্বাস্থ্যকর্মীরা, প্রতিদিন যে লড়াই চালাচ্ছেন তাঁরা, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। তাই তাঁদের ভাতা বাড়ানো ও অন্যান্য সুযোগসুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কতটা বাড়ছে ভাতা?

পুরমন্ত্রী বলেছেন, পুর স্বাস্থ্যকর্মী যাঁদের বেতন ছিল ৩ হাজার ১২৫ টাকা, তা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ৫০০ টাকা।

প্রথম স্তরের সুপারভাইজারদের মাসিক বেতন ৩ হাজার ৩৩৮ টাকা থেকে দ্বিগুণ বেড়ে হল ৬ হাজার ৫০০ টাকা।

অবসরকালীন ভাতাও বেড়েছে পুর স্বাস্থ্যকর্মীদের। ফিরহাদ জানিয়েছেন, এতদিন  তাঁদের অবসরকালীন ভাতা ছিল দু’লাখ টাকা। এবার তা আরও এক লাখ বাড়িয়ে মোট তিন লক্ষ টাকা করা হয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More