করোনা: রাশিয়াবাসীকে গৃহবন্দি করতে রাস্তায় বাঘ-সিংহ ছেড়েছেন পুতিন! একেবারেই ভুয়ো খবর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা আতঙ্কে কাঁপছে সারা বিশ্ব। পৃথিবীর একাধিক দেশে মহামারীর আকার নিয়েছে নোভেল করোনাভাইরাস। মৃতের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। এর মধ্যেই সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ছবি। যেখানে দেখা গিয়েছে প্রকাশ্য রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছে এক তাগড়াই সিংহ।

ছবি ভাইরাল হওয়ার পাশাপাশি শোনা গিয়েছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নাকি সেখানকার রাস্তায় এইসব সিংহদের ছেড়ে দিয়েছেন। সঙ্গে আছে বাঘও। উদ্দেশ্য একটাই। করোনা সতর্কতায় আমজনতাকে বাড়িতেই সেলফ আইসোলেশন বা সেলফ কোয়ারেন্টাইনে রাখা। যেনতেনপ্রকারেণ পুতিন নাকি দেশবাসীকে গৃহবন্দি করতে মরিয়া। আর তাই রাস্তায় ৮০০ বাঘ-সিংহকে একসঙ্গে ছেড়ে দিয়েছেন তিনি, যাতে চাইলেও কেউ প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াতে না পারে।

এখানেই শেষ নয়। রাশিয়ার প্রকাশ্যে রাস্তায় সিংহ ঘুরে বেড়ানোর ছবির পাশাপাশি শোনা গিয়েছিল সেখানে নাকি ৩০৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। মৃত্যুও হয়েছে একজনের। সোশ্যাল মিডিয়ায় সব প্ল্যাটফর্মেই গত কয়েকদিন ধরে ঘুরছে এইসব ছবি এবং তথ্য। ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম-টুইটার, বাদ যায়নি কিছুই। তেড়েফুঁড়ে উঠেছিলেন নেটিজেনরাও।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এইসব খবর এবং ছবি ভাইরাল হওয়ার ক’দিন পরেই জানা গিয়েছে আসল তথ্য। এই সব খবরই যে আসলে ভুয়ো সেকথা প্রকাশ্যে এসেছে। তার পাশাপাশি জানা গিয়েছে ২০১৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার কোনও একটি রাস্তায় এই সিংহটিকে ঘুরে বেড়াতে দেখা গিয়েছিল। তখনই তোলা হয়েছিল এই ছবি। নেট দুনিয়ায় পুরনো ছবি ভাইরাল বা ট্রেন্ডিং হওয়া নতুন ব্যাপার নয়। কিন্তু তা বলে এমন ভুয়ো খবর! আসল তথ্য সামনে আসতেই রীতিমতো হতবাক হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ।

তবে কেবল বাঘ-সিংহ ছেড়ে দেওয়া কিংবা করোনাভাইরাসের পরিসংখ্যান নিয়ে ভুল তথ্যই নয় এই ভুয়ো খবরের তালিকায় রয়েছে আরও। শোনা গিয়েছিল, রাশিয়াবাসীকে নাকি ২ সপ্তাহের জন্য বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুধু তাই নয়, করোনা সতর্কতায় এই নিয়ম না মানলে ৫ বছরের জেল হতে পারে বলেও নাকি ঘোষণা করেছিলেন পুতিন।

তবে এই সব তথ্যই যে মিথ্যে এবার সেটা প্রকাশ্যে এসেছে। এতদিন যে সব কারণে নেটিজেনরা রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে শাপশাপান্ত করেছেন, কিংবা যাঁরা পুতিনকে নিয়ে দেদার ট্রোলে ভরিয়ে দিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া, তাঁরাই এবার বুঝেছেন যে আদপেও ওই তাগড়াই সিংহকে রাশিয়ার রাস্তায় ঘুরতে দেখা যায়নি। ওই পশুরাজ দক্ষিণ আফ্রিকার বাসিন্দা। এবং আমজনতাকে বাঘ-সিংহ কিংবা জেল কোনওটারই ভয় দেখিয়ে সেলফ কোয়ারেন্টাইন করতে চাননি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More