#Breaking: ফের জোড়া বিস্ফোরণ কলম্বোতে, জারি কারফিউ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পরপর ছ’টি বিস্ফোরণের রেশ এখনও কাটেনি। নিহতের সংখ্যা অন্তত ১৬০। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে নিহতের সংখ্যা। তারমধ্যেই এ বার ফের জোড়া বিস্ফোরণে কেঁপে উঠলো কলম্বো। শ্রীলঙ্কা প্রশাসন সূত্রে খবর, দুপুর ২টো নাগাদ সপ্তম বিস্ফোরণ ঘটে। তার কিছুক্ষণ পরেই আরেকটি বিস্ফোরণ হয়। এই বিস্ফোরণে দু’জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই সেই এলাকাতে পৌঁছেছে সেনা। তল্লাশি চালানো হচ্ছে এলাকা জুড়ে। কারফিউ জারি করা হয়েছে কলম্বোতে।

শ্রীলঙ্কা প্রশাসন সূত্রে খবর, রবিবার সকালে পরপর ছ’টি বিস্ফোরণের পরে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার রাজধানী। পুরো কলম্বো জুড়ে শুধুই লাশের ভিড়। আহতদের আর্তনাদ। পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল প্রশাসনকে। জরুরি বৈঠক ডাকেন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিঙ্ঘে। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজধানীতে নামাতে হয় সেনা। তল্লাশি চালানো হয় হোটেল-রেস্তোরাঁতে।

কিন্তু তার কিছুক্ষণ পরেই দুপুর ২টো নাগাদ ফের বিস্ফোরণ হয় কলম্বোর দেহিওয়ালাতে একটি হোটেলে। তার কিছুক্ষণ পরেই ওরুগোদাওয়াট্টায় আরেকটি বিস্ফোরণ হয়। এই দুই বিস্ফোরণে আরও ২জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। খবর পেয়ে সেখানে নামানো হয় সেনা। কিন্তু পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হচ্ছে। গোটা দেশের লোক আতঙ্কিত। আর তাই পরিস্থিতি সামাল দিতে কলম্বোতে জারি করা হয়েছে কারফিউ। সাধারণ মানুষকে রাস্তায় বেরাতে বারণ করা হয়েছে। প্রত্যেকটি বড় হোটেল-রেস্তোরাঁতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। দোকান-পাঠ সব বন্ধ রয়েছে। কলম্বোর রাস্তাঘাট শুনশান। খালি বুটের আওয়াজ, অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন।

এরমধ্যেই জানা গিয়েছে, ১১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান পুজুথ জয়সুন্দরা একটি আইবি সতর্কবার্তা পাঠিয়েছিলেন। এই সতর্কবার্তায় তিনি জানিয়েছিলেন, “একটি বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে, ন্যাশনাল থোটিথ জামাথ ( এনটিজে ) নামের একটি মুসলিম জঙ্গি সংগঠন কলম্বোর সব বড় চার্চে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করছে। জঙ্গিদের নিশানায় রয়েছে কলম্বোর ভারতীয় হাই কমিশনও।” এই জঙ্গি সংগঠনই গত বছর শ্রীলঙ্কায় এলাধিক বৌদ্ধ মূর্তি ভাঙার ঘটনায় যুক্ত ছিল। এই সতর্কবার্তার পরেও কেন পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা নেওয়া হলো না, তা নিয়েই প্রশ্নের মুখে পড়েছে শ্রীলঙ্কা প্রশাসন।

শ্রীলঙ্কার প্রশাসন সূত্রে খবর, এমনিতেই ৮টি বিস্ফোরণ হয়েছে কলম্বোতে। আর যাতে কোনও বিস্ফোরণ না হয়, সেই জন্য বাড়ানো হয়েছে সুরক্ষা। কারা এই বিস্ফোরণের সঙ্গে যুক্ত সে ব্যাপারেই খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি।

আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কা ব্লাস্ট: ১০ দিন আগেই কলম্বোতে নাশকতার ব্যাপারে সতর্ক করেছিলেন পুলিশ প্রধান

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More