ক্রিকেটে হারিয়েছি, অর্থনীতিতেও ভারতকে হারাতে পারি: ইমরান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অর্থনীতি নিয়ে আলোচনার মঞ্চে ক্রিকেটকে টেনে আনলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সুইৎজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের মঞ্চে পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা ও সম্পদ নিয়ে আলোচনায় তাঁর সময়ের ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটের কথা তুললেন ইমরান। বললেন, তাঁর সময়ে ভারতের উপর আধিপত্য ছিল পাকিস্তানের। শুধু ক্রিকেট নয়, হকিতেও এই প্রাধান্য রাখত পাকিস্তান। যেভাবে খেলাধুলোয় তাঁরা প্রাধান্য দেখাতেন, সেভাবেই অর্থনীতিতেও প্রাধান্য দেখাতে পারেন যদি দেশের সম্পদের ঠিকমতো ব্যবহার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ব্রেকফাস্ট সেশনে নিজের বক্তব্য রাখার সময় ইমরান বলেন, “ষাটের দশকে পাকিস্তান এশিয়ার রোল মডেল ছিল। আমরা সেই আশাতেই বেড়ে উঠেছিলাম। কিন্তু আমাদের দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা না হওয়ার খেসারত দিতে হল আমাদেরকেই। যেই গণতন্ত্রের অবস্থা খারাপ হল, সেই সেনা দখল নিল।” ইমরান আরও বলেন, “আমি যখন ক্রিকেট খেলতাম, তখন আমাদের থেকে আয়তনে সাত গুণ বড় ভারতকে দুরমুশ করতাম। এছাড়াও হকি ও কিছু খেলায় আমরা দারুণ ছিলাম।”

এরপরেই পাকিস্তানের অর্থনীতির প্রসঙ্গে আসেন ইমরান খান। তিনি জানান, তাঁর দেশের যা সম্পদ রয়েছে তা ঠিকমতো ব্যবহার করতে পারলে বিশ্ব অর্থনীতিতে পাকিস্তান অনেকটাই এগিয়ে যাবে। তিনি বলেন, “চিরকালই পাকিস্তানের প্রাকৃতিক সম্পদ অনেক ছিল। কিন্তু দুর্নীতি ও পরিকল্পনার অভাবে এই সম্পদের ব্যবহার ঠিকমতো করা যায়নি। আমাদের কয়লার ভান্ডার বিশাল। আমাকে একজন জানিয়েছেন, দুটো ব্লকের কয়লা বিক্রি করলে আমাদের দুই বিলিয়ন ডলার লাভ হবে। কিন্তু আমাদের উৎপাদন ঠিকমতো হচ্ছে না। ফলে অর্থনীতি মার খাচ্ছে।”

এই পরিস্থিতি থেকে ক্রিকেটের মতোই পাকিস্তান উন্নতি করবে বলেই জানিয়েছেন ইমরান। তিনি জানান, তাঁর খেলোয়াড় জীবন তাঁকে শিখিয়েছে, দ্বিতীয় হয়ে কোনও লাভ নেই। সেই শিক্ষাকেই তিনি পাকিস্তানের অর্থনৈতিক উন্নতিতে ব্যবহার করতে চান। তাহলে আগে যেমন ক্রিকেটে ভারতকে পাকিস্তান হারাত, কয়েক বছরের মধ্যে অর্থনীতিতেও তাই হবে বলে দাবি করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More