ট্রমা সেন্টার, কম্বল বিতরণ, রাজনীতি থেকে বেরিয়ে গায়ক বাবুলের অনেক প্ল্যান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শনিবারের রাজ্য রাজনীতি কার্যত তোলপাড় করে দিয়ে রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন বাবুল সুপ্রিয়। কিন্তু তারপরেও দানা বেঁধেছে জল্পনা। এই ‘ফেসবুক ইস্তফা’ নিয়ে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি কেউ কেউ। সব সন্দেহ, সব সমালোচনা কটাক্ষের জবাব রাতেই দিলেন বাবুল সুপ্রিয়। গায়ক বাবুল সুপ্রিয়।

আপাতত কয়েক দিন গান গাইবেন তিনি, এমনটাই জানিয়ে দিয়েছেন বাবুল। ফেসবুকে লিখেছেন, একটু সময় দিন না আমাকে।কটা গান বা শো-তেই-বা গাইবো আমি এখন। হাতে অনেকটাই সময় থাকবে।

কী প্ল্যান বাবুলের? ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, একটা ট্রমা সেন্টার বানানোর ইচ্ছে আছে, বন্ধুপ্রতিম কয়েকজন ডাক্তারের সাথে বেশ কিছুদিন ধরে কথা হয়ে আছে। কিন্তু সক্রিয় রাজনীতিতে আছি বলে অনেকেই একটু সংশয় করছে সেটা বুঝতে পারতাম – এখন হয়তো কাজটা একটু সহজহবে। হ্যাঁ, কালকেই কি পারবো? না, একটু সময় লাগবে কিন্তু ইমরান খান যদি তার মার নামে এতো কোটি টাকার হাসপাতাল বানাতে পারে তাহলে আমি ৫/১০ বছরে কি কিছুই করতে পারবোনা? অত্যাচারিত ভাই-বোনেদের পাশে মানবাধিকার কমিশনকে সাথে নিয়ে লড়বো।

এখানেই শেষ নয়, তিনি আরও বলেছেন, কি ভালো লাগবে বলুন তো যখন আসানসোলে গান গাওয়ার টাকায় মায়ের নামে একটি মঞ্চ থেকে তেরপল বা কম্বল বিতরণ করবো। কোনো বন্ধুকে বলবো কিছু ডোনেট করতে বা ৫০০ কম্বল আমার সাথে মঞ্চে দাঁড়িয়ে বিতরণ করতে। মোট কথা রাজনীতির বাইরে থেকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাইছেন বাবুল, স্বমহিমায় ফিরতে চাইছেন গায়ক হিসেবে।

কিন্তু রাজনীতি কেন ছাড়লেন তিনি? বাবুল জানিয়েছেন, রাজনৈতিক ‘ব্যক্তিত্ব’ বা মন্তব্যের সাথে তো আর রোজ রোজ ডিল করতে হবে না। কত পজিটিভ এনার্জি বাঁচবে বলুন তো যেটা অন্য সৎ কাজে লাগাতে পারবো।

কোন ধরনের ব্যক্তিত্ব? কোন মন্তব্য? দুটো ‘টাটকা’ উদাহরণ দিয়ে বুঝিয়েছেন বাবুল। তাঁর ইস্তফার কথা শুনে দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, মাসির গোঁফ হলে মাসি বলব না মেসো বলব তা ঠিক করব। আগে তো মাসির গোঁফ হোক। সাংসদ পদ থেকে বাবুল ইস্তফা দিয়েছেন কিনা তাও জানতে চেয়েছেন দিলীপ।

আসানসোলের সাংসদের এই ফেসবুক ইস্তফা দেখে গতকাল কটাক্ষ করেছিলেন কুণাল ঘোষ। তিনি লিখেছিলেন, লোকসভায় স্পিকারের কাছে গিয়ে ইস্তফা না দিলে গোটা ঘটনাকে নাটক মনে হচ্ছে। শোলেতে ধর্মেন্দ্রর নাটকের সমান। পুরোটাই দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য করছেন বাবুল।

এই দুই টাটকা উদাহরণ দেখিয়ে রাজনীতি ছাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন বাবুল সুপ্রিয়।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More