শোভাযাত্রা করে মমিরা চলল নতুন ঠিকানায়! তাক লাগাল মিশরের রাজপথ

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পিরামিডের দেশ মিশর। বিশাল বিশাল তিন কোণা পাথরের নীচে মাটির গভীরে সেদেশে ঘুমিয়ে থাকেন অনেক কালের পুরোনো রাজা-মহারাজা। বহুদিনের পুরোনো আস্তানা ছেড়ে তাঁরাই এবার চললেন নতুন গন্তব্যে।

ব্যাপারটা কী? না, ইতিহাসের পাতা থেকে আবার হঠাৎ বেঁচে ওঠেননি মিশরের ফ্যারাওরা। তাঁদের প্রাচীন মমিগুলোকে নতুন ঠিকানায় নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মিশর সরকার। গত শনিবার ২২টি পুরোনো মমিকে রীতিমতো বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে নতুন একটি মিউজিয়ামে। সারে সারে মমির শোভাযাত্রার বর্ণময় দৃশ্য তাক লাগিয়ে দিয়েছে গোটা দুনিয়াকে।

Grandiose spectacle': Egyptian royal mummies moved to new home in Cairo | South China Morning Post

মিশরের রাজধানী কায়রোর তাহরির স্কোয়ার এলাকার ‘ইজিপ্সিয়ান মিউজিয়ামেই’ এতদিন ছিল ২২টি মমির আস্তানা। কিন্তু এবার তাঁদের ফুসতাত অঞ্চলের নতুন ‘মিউজিয়াম অফ ইজিপ্সিয়ান সিভিলাইজেশন’-এ সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জানা গেছে, সুপ্রাচীন এই মমিগুলির মধ্যে ১৮ জন রয়েছেন ফ্যারাও। বাকি ৪ জন হলেন রানি। মমিদের বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রাকে “ফ্যারাওদের গোল্ডেন প্যারেড” নাম দিয়েছে মিশরবাসী। নীলনদ বরাবর প্রায় মাইল তিনেক পথ ধরে চলে এই রাজকীয় শোভাযাত্রা।

প্রাচীনকালে মিশরের রাজারাজড়াদের মৃত্যুর পরে কবর অবধি বহন করার জন্য ব্যবহার করা হত স্থানীয় কিছু নৌকো। এদিনের শোভাযাত্রায় মমিগুলির সঙ্গে ছিল ঠিক সেই আদলের ছোটো ছোটো জলযান। এছাড়া প্রাচীন কায়দায় ঘোড়সওয়ারদের পাহারার মধ্যে দিয়ে এগিয়ে যায় ২২টি কফিনবন্দি মমি।

22 royal mummies, kings and queens who died more than 3,000 years ago, get a parade to move to their new home - CBS News

শনিবারের ‘গোল্ডেন প্যারেডে’ ছিলেন মিশরের বিখ্যাত কিছু ফ্যারাও। আজ থেকে প্রায় ৩ হাজার বছর আগে তাঁদের কবর দেওয়া হয়েছিল। ফ্যারাও দ্বিতীয় রামসেস, প্রথম থুতমোস, প্রথম সেতি এবং রাণী হাৎসেপসুতের মমি শোভাযাত্রার মাধ্যমে নতুন মিউজিয়ামে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এঁদের মধ্যে বেশ কিছু রাণী তাঁদের সমকালে মিশরে ফ্যারাও হিসেবে শাসন চালিয়েছিলেন বলেও শোনা যায়।

মোটামুটি ১৯ শতকে এই সমস্ত মমি কবর খুঁড়ে বের করে আনা হয়েছিল। তারপর থেকে তাঁদের আস্তানা ছিল কায়রোর ‘ইজিপ্সিয়ান মিউজিয়াম’।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.