পুজোর আগে এপারের পাতে জুটবে ইলিশ, রফতানিতে ছাড় বাংলাদেশের

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বৃষ্টি কম হচ্ছে না। কিন্তু জালে উঠছে না ইলিশ (ilish)। রসনাপ্রিয় বাঙালির পাতে এবছর ইলিশের দেখা মেলাভার। বর্ষা পেরিয়ে বাংলার আকাশে ঢুকে পড়েছে শরতের হাওয়া। সেই হাওয়ায় পুজোর গন্ধ। পুজোর গন্ধের সঙ্গে ইলিশের গন্ধ পাবে কিনা তাই নিয়ে পশ্চিমবঙ্গবাসী তাকিয়ে বাংলাদেশের দিকে। তবে এবার বাঙালির মুখে হাসি ফুটিয়ে বাংলায় ঢুকছে ইলিশ।

বাংলাদেশ থেকে ইলিশের আমদানির জন্য প্রয়োজন ছিল সে দেশের বাণিজ্য মন্ত্রকের ছাড়পত্র। সোমবার সেই ছাড়পত্র মেলায় মুখের হাসি চওড়া হচ্ছে মৎস্যব্যবসায়ীদের। পুজোর পাতে ইলিশের স্বাদ পেতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গবাসী।

গতবছরের মতো এবছরেরও ইলিশের রফতানিতে ছাড়পত্র দিয়েছে বাংলাদেশ। বুধবার থেকেই ওপার বাংলা থেকে এপার বাংলায় ইলিশের আমদানি শুরু হবে। আগামী ১০ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে এই আমদানি। অর্থাৎ পুজোর দোরগোড়াতেও ইলিশ মিলবে বাংলাদেশ থেকে। প্রতিদিন ১০০ থেকে ২০০ মেট্রিক টন করে ইলিশের আমদানি হবে বাংলায়। মোট ২০৪০ টন বাংলাদেশের ইলিশ রাজ করবে এপার বাংলার বাজারে।

আরও পড়ুন: জলপাইগুড়ির দুই করোনা আক্রান্ত শিশুকে পাঠানো হল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে

আগের বারের থেকে আরও বেশি পরিমাণ ইলিশ আসছে বাংলায়। আগের বার ৫০০ মেট্রিক টন ইলিশ মিলেছিল বাংলাদেশের থেকে। এবার সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০৪০ মেট্রিক টনের কাছাকাছি। বাঙালিকে আর ইলিশ না পেয়ে গোমড়া মুখে ফিরতে হবে না বাজার থেকে। তবে এখন এটাই দেখার ঘাটতি মিটলে দামের ফারাক কি দাঁড়ায়।

রসনাপ্রিয় বাঙালির পাতে থাকেই ভাতের সঙ্গে ইলিশের হাজার পদ। কখনও ইলিশ ভাপা, কখনও দই ইলিশ, কখনও আবার বাইরে বৃষ্টির সঙ্গে তাল রেখে খিচুড়ি আর ইলিশ ভাজা। বর্ষায় বাঙালির প্রিয় ইলিশ গল্পে বা রান্নার বইয়ে থাকলেও বাজারে ছিল না! বরফের ইলিশ বা ছোট ইলিশের স্বাদে মন ভরত না বাঙালির। তবে পুজোর আগে বাংলাদেশের ইলিশ ঢোকায় খবরে মন ভালো হতেই হবে বাঙালির।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
1 Comment
  1. […] আরও পড়ুন: পুজোর আগে এপারের পাতে জুটবে ইলিশ, রফতা… […]

Leave A Reply

Your email address will not be published.