মাত্র ০.৫ শতাংশ জমিতে হাজার গিগাওয়াট সৌরশক্তি তৈরি করতে পারবে ভারত, দাবি মুকেশ আম্বানির

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কিছুদিন আগেই জানা যায়, পুনর্ব্যবহার যোগ্য শক্তি উৎপাদনে বড় বিনিয়োগ করতে চলেছে শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। শুক্রবার মুকেশ ঘোষণা করলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে তাঁর সংস্থা ১০০ গিগাওয়াট সৌরশক্তি উৎপাদন করবে। সরকার আগামী দিনে ৪৫০ গিগাওয়াট সৌরশক্তি উৎপাদন করার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে। এদিন মুকেশের ঘোষণা থেকে বোঝা যায়, তার এক পঞ্চমাংশ সৌরশক্তি উৎপাদন করবে রিলায়েন্স একাই।

এদিন ন্যাশনাল ক্লাইমেট সামিটে ভাষণ দেন মুকেশ। তাতে তিনি আগামী দিনে সৌরশক্তি উৎপাদনে রিলায়েন্স কোন নীতি নেবে তা ব্যাখ্যা করেন। তাঁর কথায়, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতে পরিবেশবান্ধব অর্থনীতি গড়ে তোলার কথা বলেছেন। আমরা তাঁর স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে তৈরি।”

রিলায়েন্স কর্তা জানান, গুজরাতের জামনগরে ৫ হাজার একর জুড়ে বিস্তৃত ধীরুভাই আম্বানি গ্রিন এনার্জি গিগা কমপ্লেক্স আগামী দিনে হয়ে উঠবে বিশ্বের বৃহত্তম পুনর্ব্যবহারযোগ্য শক্তি উৎপাদন কেন্দ্র। সেখানে থাকবে চারটি গিগা ফ্যাক্টরি। তাঁর কথায়, “আগামী তিন বছরে আমরা এই প্রকল্পে ৭৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করব।” একইসঙ্গে তিনি জানান, রিলায়েন্স যথাসাধ্য চেষ্টা করছে যাতে খুব সস্তায় পরিবেশবান্ধব উপায়ে হাইড্রোজেন তৈরি করা যায়। সেক্ষেত্রে হাইড্রোজেনের প্রতি কেজির দাম নেমে আসবে দুই ডলারে।

মুকেশ বলেন, “ভারতীয় উপমহাদেশে সূর্যদেব, বায়ুদেব এবং অন্যান্য দেবতার আশীর্বাদ আছে। এখানে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুনর্ব্যবহারযোগ্য শক্তি উৎপাদন করা সম্ভব। আমাদের দেশে বছরে ৩০০ দিনই সূর্যের আলো পাওয়া যায়। ভারতের মাত্র ০.৫ শতাংশ জমি ব্যবহার করে ১ হাজার গিগাওয়াট সৌরশক্তি উৎপাদন করা যেতে পারে।”

শুক্রবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারের দাম বেড়েছে ৩.৬৫ শতাংশ। বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জে ওই সংস্থার শেয়ারের দাম হয়েছে ২৩৭৭ টাকা ৫০ পয়সা। শেয়ারের দাম বাড়ার ফলে সামগ্রিকভাবে রিলায়েন্স কোম্পানির দামও বেড়েছে। এদিন তার দাম হয়েছে ১৫ লক্ষ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার রিলায়েন্স রিটেল স্থানীয় সার্চ ইঞ্জিন প্ল্যাটফর্ম জাস্ট ডায়াল লিমিটেডের ৪১ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয়। এর ফলে রিলায়েন্স ওই কোম্পানিটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। ওই খবর প্রকাশিত হওয়ার পরে  শুক্রবার রিলায়েন্সের শেয়ার কেনার আগ্রহ দেখান অনেকে।

অগাস্টের শেষে জানা যায়, কোভিডের টিকা আনছে রিলায়েন্স। রিলায়েন্স গ্রুপের ‘রিলায়েন্স লাইফ সায়েন্স’ শাখা স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে কাজ করছে অনেক দিন ধরেই। এবার তারা কোভিডের ভ্যাকসিন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে।

বেশ কয়েক দিন ধরেই গবেষণা খানিকটা এগোনোর পরে অবশেষে টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতিও মিলেছে। সংস্থার আবেদনের ভিত্তিতে এই অনুমতি দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোল বোর্ড। সূত্রের খবর, রিলায়েন্স তার প্রস্তাবিত দুটি ডোজের কোভিড ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য অনুমতি চেয়েছিল। দীর্ঘ আলোচনার পরেই ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতি দেওয়া হয়েছে তাদের।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More