সালানপুরে সাজোসাজো রব, শুরু হল ঘাটওয়াল সম্প্রদায়ের কর্মা উৎসব

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দ্বিতীয় বছরে পড়ল সালানপুর ব্লকের ঘাটওয়াল সম্প্রদায়ের কর্মা উৎসব (Karma festival)  মঙ্গলবার এলাকার জিৎপুর ফুটবল ময়দানে শুরু হল এই উৎসব। সাতদিন ব্যাপী এই উৎসব ঘিরে মেতে থাকবেন ঘাটওয়াল সম্প্রদায়ের আদিবাসীরা।

দিনভর চলছে বৃষ্টি। তারমধ্যেও পশ্চিম বর্ধমানের সালানপুর ব্লকের এই উৎসব ঘিরে সাজোসজো রব। উৎসবের প্রথম দিনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বারাবনির বিধায়ক তথা পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূলের সভাপতি বিধান উপাধ্যায়। রীতি মেনেই এদিন বিশিষ্ট অতিথিকে বরণ করে নেন ঘাটওয়াল সম্প্রদায়ের মানুষেরা। প্রদীপ জ্বালিয়ে-ফিতে কেটে এই উৎসবের সূচনা করেন বিধায়ক। ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেওয়ার পাশাপাশি চিরাচরিত রীতি মেনেই আদিবাসী মহিলারা বিধায়কের পা ধুইয়ে বিশেষ সম্মান প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বিধান উপাধ্যায় বলেন, “এত বৃষ্টির মধ্যে দিয়েও পালিত হচ্ছে আদিবাসী ঘাটওয়াল সমাজের কর্মা উৎসব। এই সমাজের পাশে দল ও রাজ্য সরকার সর্বদাই ছিল ও সারা জীবন থাকবে।” এদিনের অনুষ্ঠানে আদিবাসী মহিলারা নৃত্য পরিবেশন করে উৎসবকে এক অন্য মাত্রা প্রদান করেন।

আরও পড়ুন: ক্যাট দিতে চান? ফর্ম ফিলআপের লাস্ট ডেট কাল, জেনে নিন বিস্তারিত

এছাড়াও এদিনের উৎসবে উপস্থিত ছিলেন ঘাটওয়াল সমাজের সভাপতি সহদেব রায়, সম্পাদক শিবু রায়, কর্মা উৎসবের সভাপতি চিকিৎসক সত্য নারায়াণ রায়, লখায় রায়, ধ্রুব রায়, বিশাল রায়,শঙ্কর রায় সহ বিশিষ্ট জনেরা। অনুষ্ঠানের উপস্থিত হয়ে সহদেব রায় বলেন, “সাতদিন ব্যাপী এই উৎসব আদিবাসী সমাজের পরম্পরা। মূলত কৃষি কাজের সঙ্গে জড়িত সম্প্রদায়ের মানুষরা ধান শষ্যকে পুজো করে আসছে। সালানপুর এলাকায় দুবছর থেকে এই উৎসব পালন করা হচ্ছে।”

আদিবাসীরা মূলত প্রকৃতির পূজারি হন। কর্মা গাছকেই দেবতা রূপে পুজো করেন তাঁরা। যেমন দুর্গাপুজোর সময় পাঁচদিন ব্যাপী মা দুর্গার পুজো হয়, তেমনই এই উৎসবে সাতদিন কর্মা গাছের ডাল পুঁতে সেখানে পুজো করা হয়। রাতভর চলে সেই পুজো। আর এই পুজো ঘিরেই আদিবাসীরা মেতে ওঠেন উৎসবে। এই উৎসবে বোন ও দিদিরা তাঁদের ভাই দাদাদের দীর্ঘায়ু কামনায় উপবাস করে এই পুজো করে থাকেন। সাতদিন আদিবাসীরা নিজেদের মধ্যে উৎসবের মেজাজে মেতে থাকেন।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More