জন্মদাতার সামনেই পালিকা মায়ের জন্য কেঁদে ভাসাল একরত্তি! হাইকোর্টে মহানাটক

0

দ্য ওয়াল ব্যুরোঃ বয়স এখনও পাঁচ ছোঁয়নি। চার বছরের শিশুকন্যাকে নিয়েই আদালতে চলছে টানাটানি। অভিযোগ, শিশুর জন্মের পরেই তাকে ছেড়ে যান বাবা। তারপর থেকে পালিকা মায়ের কাছেই মানুষ হয়েছে সে। এখন সেই বাবা এসেছেন মেয়ের দায়িত্ব বুঝে নিতে। জল গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত।

এই মামলার শুনানিতেই সোমবার অভিনব ছবি দেখল কলকাতা হাইকোর্ট। যে শিশুকন্যাকে নিজের কাছে নিয়ে যেতে চাইছেন তার জন্মদাতা বাবা, সেই বাচ্চা মেয়েটিই কেঁদে ফেলল। পালিকা মা চোখের আড়াল হতেই কেঁদে ভাসাল সে। শিশুমন তো আদালতের জটিলতা, আইনি মারপ্যাঁচ বোঝে না। মায়ের কাছেই থাকতে চায় সে।

কলকাতা হাইকোর্ট অবশ্য শিশুর এই কান্না দেখে গলে যায়নি। এত সহজে সিদ্ধান্তেও আসেননি বিচারপতি। বিচারপতি সৌমেন সেনের ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছে আগামীকাল মঙ্গলবার ওই শিশুকে নিয়ে যেতে হবে শিশু কল্যাণ কমিটির কাছে। তারপর সিদ্ধান্ত হবে কার কাছে থাকবে ওই মেয়ে।

জানা গেছে, ২০১৭ সালে ওই শিশুকন্যা জন্মের পরেই তার মা আত্মঘাতী হন। ছেড়ে চলে যান বাবাও। বাড়িতে নিত্যদিনের অশান্তি লেগেই থাকত। সেই সময় বাবা-মা ছাড়া ওই ছোট্ট মেয়েটাকে নিজেদের কাছে নিয়ে রেখেছিলেন পাড়ার এক দম্পতি। সম্প্রতি বাচ্চাটির পালক বাবাও মারা গিয়েছেন। এখন মেয়েকে নিজের কাছে নিতে এসেছেন জন্মদাতা। কিন্তু পালিকা মা তাকে এত সহজে ছেড়ে দিতে নারাজ, ফলে শিশুকন্যাকে নিয়ে টানাটানি গড়িয়েছে আদলতের চৌকাঠে। আদালত জানিয়েছে বাচ্চাটি কী চায় তা জানার চেষ্টা করবে শিশু কল্যাণ কমিটি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.