‘মোদীজি আপনি কিছুই কি জানেন না! সবই অমিত শাহ করেন?’ প্রশ্ন মমতার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অটলবিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাজপেয়ী কলকাতায় এসে মমতার কালীঘাটের বাড়িতেও গিয়েছিলেন। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীকে মালপো বানিয়ে খাইয়েছিলেন মমতার মা গায়ত্রী দেবী। আবার লালকৃষ্ণ আডবাণীর সঙ্গে মমতার সুসম্পর্কের কথাও সর্বজনবিদিত। বর্তমান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গেও তৃণমূলনেত্রীর যথেষ্ট সখ্য রয়েছে। তাই মমতা বারবার বলেন, সেই বিজেপি আর এই বিজেপি (পড়ুন মোদী-শাহ জামানার বিজেপি) এক না। এরা কারা!

গত কয়েক বছর ধরে একাধিকবার দিদি দুই ঘরানার কথা বলে বোঝাতে চেয়েছেন, বিজেপি পাল্টে গেছে। অনেকে বলেন, এ আসলে বিজেপির মধ্যে দিদির ধন্দ তৈরির কৌশল। তবে এতদিন মমতা দুই জমানার বিজেপির মধ্যে ফারাক টানতেন। একুশের মঞ্চ থেকে নরেন্দ্র মোদী আর অমিত শাহের মধ্যেই পার্থক্য গড়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেন তৃণমূলনেত্রী।

এদিন মমতা বলেন, “মোদীজি, আমি আপনাকে ব্যক্তিগত ভাবে কিছু বলছি না। কিন্তু আপনি কি কিছুই জানেন না? সবই অমিত শাহ করেন?”

বিধানসভা ভোটের প্রচারেও মমতা একাধিক বার বলেছেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অফিস থেকে নির্বাচন কমিশন চলছে। এদিনও বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের অফিস বিজেপির পার্টি অফিস হয়ে গিয়েছে। একুশের প্রচারে অমিত শাহের শারীরিক গঠন নিয়েও বিদ্রুপ করেছিলেন তৃণমূলনেত্রী। নাদুস-নুদুস, ফুটুসফাটুস, হোদলকুঁতকুঁত কত কথাই না বলেছিলেন। এদিন সরাসরি প্রশ্ন তুললেন, সবই কি অমিত শাহই চালান? প্রধানমন্ত্রী কি কিছুই জানেন না?

যদিও বিজেপির এক মুখপাত্র এ ব্যাপারে বলেছেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভুল করছেন। বিজেপি একটা সাংগঠনিক দল। এটা ওঁর পার্টির মতো নয় যে একটাই পোস্ট, বাকি সব ল্যাম্প পোস্ট! আমাদের দলের একটা কাঠামো রয়েছে। সেই অনুযায়ী যৌথ নেতৃত্বের ভিত্তিতেই দল চলে। ‘

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More