রায়গঞ্জের সারদা বিদ্যামন্দিরে চালু মিনি আবহাওয়া দফতর

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সম্পূর্ণ নিজস্ব উদ্যোগে এবার স্কুল প্রাঙ্গনের ভিতরে ক্ষুদ্র আবহাওয়া দফতর বানালো রায়গঞ্জের সারদা বিদ্যামন্দির নামের একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল।

এই আবহাওয়া দফতরে রেনগজ, বাত পতাকা, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মাপক যন্ত্র, সানসাইন রেকর্ডার, অ্যানিমোমিটার যন্ত্র লাগানো হয়েছে। এর মাধ্যমে আগামী দিনে স্কুল খোলার পর পড়ুয়াদের হাতে কলমে আবহাওয়া, জলবায়ু ও বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ে সচেতন করা সম্ভব হবে। এমনটাই আশা স্কুল কর্তৃপক্ষের।

আজ স্কুলের ভিতরে ক্ষুদ্র আবহাওয়া দপ্তর ‘ব্রিজ’ চালুর পরে, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ধ্রুবজ্যোতি অধিকারী সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন। তিনি জানান, ‘সিলেবাস ভিত্তিক পড়াশোনার পাশাপাশি আমরা বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সর্বদাই সচেষ্ট থাকি। তাই রায়গঞ্জ মোহনবাটি হাইস্কুলের সহ-শিক্ষক বিশ্বজিৎ রায়কে এমন একটা দফতর তৈরির আবেদন জানাতেই তিনি রাজি হয়ে যান। আজ ওঁনার প্রচেষ্টাতেই আজ এই ছোট আবহাওয়া দফতর চালু করা হল।’

রায়গঞ্জ মোহনবাটি হাইস্কুলের শিক্ষক বিশ্বজিৎ রায়ও আজকের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানান, ‘কেন্দ্র সরকারের আর্থিক সহায়তায় হিমালয়ান মাউন্টেনিয়ার্স এন্ড ট্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে জেলায় চারটি ক্ষুদ্র আবহাওয়া দফতর বসানো হয়। তার মধ্যে একটি রায়গঞ্জ ব্লকের মোহনবাটি হাই স্কুলে চালু করা হয়। এরপর সেই প্রকল্পটি বন্ধ হয়ে গেলেও ব্যক্তিগত উদ্যোগে আমি নিজের হাতে কিছু যন্ত্রপাতি বানিয়ে আবহাওয়া দফতরের কাজকর্ম চালু রাখি। এরকম অবস্থায়, সারদা বিদ্যামন্দির কর্তৃপক্ষ এই রকম একটি উদ্যোগ গ্রহণ করায় আমি যাবতীয় সহায়তা করলাম। আশা করছি, স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা উপকৃত হবে।’

আজকের এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ওই স্কুলের প্রধানাচার্য ধ্রুবজ্যোতি অধিকারী, পরিচালন সমিতির সভাপতি বিশ্বনাথ বসাক, সম্পাদক প্রদীপ দত্ত , কোষাধ্যক্ষ অভিজিৎ দাস- সহ অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকারা।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.