আইনশৃঙ্খলায় নাকি শীর্ষে উত্তরপ্রদেশ, যোগী আদিত্যনাথের ঢালাও প্রশংসা অমিত শাহর

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উত্তরপ্রদেশে আইনশৃঙ্খলা বজায় রেখে সে রাজ্যকে শীর্ষ স্থানে নিয়ে গেছেন মুখ‍্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আজ রবিবার, লখনউতে উত্তরপ্রদেশ স্টেট ইন্সটিটিউট অফ ফরেনসিক সায়েন্সের স্থাপত্য সূচনা করার অনুষ্ঠানে যোগীর এমনই প্রশংসা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন উত্তরপ্রদেশে। তার আগে, ‘মিশন ইউপি’ পরিকল্পনা নিয়ে ফেলেছে বিজেপি। একের পর এক নেতা রাজ্য সফরে যাচ্ছেন। আজ তেমনই সফর ছিল অমিত শাহর। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এদিন দাবি করেন, উত্তরপ্রদেশে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফিরবে বিজেপি। বিরোধীরা যেন এখন থেকেই পরাজয়ের প্রস্তুতি শুরু করে দেন।

এদিন অমিত শাহ বলেন, “আমি ২০১৯ সাল পর্যন্ত টানা ছ’বছর ধরে উত্তরপ্রদেশে এসেছি বারবার। তাই আগের উত্তরপ্রদেশেকেও আমি খুব ভাল করেই জানি। পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে সবসময় একটা ভয়ের পরিবেশ ছিল। সবাই ওই এলাকা ছেড়ে চলে যাচ্ছিলেন। মহিলারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন, জমি মাফিয়ারা দরিদ্র মানুষের জমি দখল করে নিচ্ছিল। দিনের আলোয় গুলি চালানোর ঘটনা, দাঙ্গা-মারপিটের ঘটনা ঘটত।”

এখন সে চিত্র বদলে গেছে বলে দাবি করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, “২০১৭ সালে বিজেপি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, উত্তরপ্রদেশকে উন্নত রাজ‍্য বানানোর। আমরা বলেছিলাম, রাজ‍্যের আইনশৃঙ্খলা সংস্কার করব। আজ, ২০২১ সালে, আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি, যোগী আদিত্যনাথ ও তাঁর দল আইনশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশকে শীর্ষ স্থানে নিয়ে গেছে।”

শুধু আইনশৃঙ্খলার প্রসঙ্গেই নয়, উত্তরপ্রদেশের আরও একাধিক সরকারি জনকল্যাণমূলক প্রকল্পের বাস্তবায়নের জন্য যোগী আদিত‍্যনাথকে কৃতিত্ব দেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, “আজ ৪৪টি ডেভেলপমেন্ট স্কিমে দেশের মধ‍্যে শীর্ষ স্থানে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। প্রকল্প তৈরি করা খুব সহজ, কিন্তু সেগুলোর বাস্তবায়ন করা, সুবিধাভোগীদের কাছে সেই প্রকল্পের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া খুবই কঠিন। সেটাই করে দেখিয়েছেন যোগী।”

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.