কংগ্রেস তাড়াতেই সিপিএমে যোগ বড় নেতার, পৌঁছে গেলেন রাজ্য দফতরে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কেরল কংগ্রেসের (Kerala Congress) অন্যতম শীর্ষ নেতা কেপি অনিল কুমার (Anil Kumar) যোগ দিলেন সিপিএমে (CPIM)। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমেনচণ্ডী, কংগ্রেস নেতা চেন্নিথালার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছিলেন কেরল কংগ্রেসের এই বর্ষীয়ান নেতা। তারপর প্রদেশ কংগ্রেস অনিল কুমারকে বহিষ্কার করে। পুরনো দল তাড়াতেই সিপিএমে যোগ দিয়েছেন তিনি।

কেরল সিপিএমের রাজ্য দফতর একেজি সেন্টারে গিয়ে পলিটব্যুরোর সদস্য কোডিয়ারি বালাকৃষ্ণনের সঙ্গে দেখা করেন অনিল কুমার। কোডিয়ারি জানিয়েছেন, অনিল কুমার সিপিএমের সঙ্গে কাজ করার আগ্রহ দেখিয়েছেন। তবে আমাদের এই ভাবে সদস্যপদ দেওয়ার রেওয়াজ নেই। তিনি দলের সঙ্গে থাকতে চাইলে থাকতে পারেন।

দল থেকে বহিষ্কার প্রসঙ্গে অনিল কুমার বলেছেন, “কংগ্রেসের সঙ্গে আমার ৪২বছরের সম্পর্ক। আমার পরিবার স্বাধীনতা সংগ্রামের সঙ্গে জড়িয়েছিল। এখনকার প্রদেশ কংগ্রেস নেতারা আমার সঙ্গে চাকরবাকরের মতো ব্যবহার করছে।”

কয়েকদিন আগেই সুধাকরণ নামের এক কংগ্রেস নেতা যোগ দিয়েছিলেন সিপিএমে। ফের এক কংগ্রেস নেতা কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দিলেন। এর আগে সিপিএম থেকে বহিষ্কার হওয়ার পর কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার নজির রয়েছে কেরলে। এপি আব্দুল্লা কুট্টিকে সিপিএম বহিষ্কার করার পর কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন। কংগ্রেসের টিকিটে বিধায়কও হন একসময়ের সিপিএম সাংসদ। যদিও পরে কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে যোগ দেন কুট্টি।

কেরলের রেওয়াজ হচ্ছে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর সরকার বদল হয়। সেই রেওয়াজ এবারই পরপর দুবার ক্ষমতায় ফিরল বামেরা। দক্ষিণের রাজ্যটিতে মূল লড়াই সিপিএম এবং কংগ্রেসেরই। বিজেপি এখনও সেখানে সেভাবে সুবিধা করতে পারেনি।

অনিল কুমারের সিপিএমে যাওয়া নিয়ে কংগ্রেস নেতা চেন্নিথালা বলেছেন, যাঁকে আমরা তাড়িয়েছি তাঁকেই সিপিএম বুকে টেনে নিয়েছে। আসলে সিপিএম দলটা ডাস্টবিনে পরিণত হয়েছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More