কাল থেকে এটিএমে টাকা তোলা সহ ব্যাঙ্কিং সিস্টেমে কী কী বদলাচ্ছে, জেনে নিন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাল ১ আগস্ট থেকে দেশের ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থায় বেশ কিছু বদল আনছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব  ইন্ডিয়া। একে তো এটিএমের ইন্টারচেঞ্জ ফি বাড়ছে, পাশাপাশি নানা পরিষেবার জন্য ব্যাঙ্কগুলি আপনার, আমার থেকে যে চার্জ কাটে, তাও বাড়ছে। মানে সামগ্রিক ভাবেই বড়সড় পরিবর্তন হচ্ছে, যা আপনার জীবনে প্রভাব ফেলবে।

আরবিআইয়ের নির্দেশানুযায়ী, জুনেই বেশ কিছু পরিবর্তন হয়েছে। যেমন বদলেছে এটিএম থেকে নগদ টাকা তোলার ইন্টারচেঞ্জ ফি। সর্বশেষ বদলের ফলে নতুন ইন্টারচেঞ্জ ফি ১৫ থেকে ২ টাকা বেড়ে হচ্ছে ১৭ টাকা। এই  বর্ধিত ফি চালু হচ্ছে কাল থেকে। এটিএম মেশিনগুলি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য যে খরচ হয়, তা তুলতেই ইন্টারচেঞ্জ ফি বাড়ছে। এক ব্যাঙ্কের খদ্দের অন্য ব্যাঙ্কের এটিএম থেকে টাকা তুললে ইন্টারচেঞ্জ ফি দিতে হয়। নন-ফিনান্সিয়াল লেনদেনের বেলায় চার্জ  ৫ এর জায়গায় বেড়ে হচ্ছে ৬ টাকা।

দেশের অন্যতম প্রধান বেসরকারি ব্যাঙ্ক আইসিআইসিআই নগদ লেনদেনের সংশোধিত সীমা বেঁধে দিচ্ছে। কাল থেকে ডোমেস্টিক সেভিংস অ্যাকাউন্টধারীদের ক্ষেত্রে এটিএম ইন্টারচেঞ্জ চার্জ, চেক বইয়ের চার্জ বদলাচ্ছে তারা। টাকা তোলা, জমার ওপর এই বদল প্রযোজ্য হবে। কলকাতা, বেঙ্গালুরু, দিল্লি, চেন্নাই, হায়দরাবাদ, মুম্বইয়ের মতো মেট্রো শহরগুলিতে আর্থিক ও তা বাদে অন্য লেনদেনের ক্ষেত্রে প্রথম তিনটি করা যাবে নিখরচায়। অন্য শহরগুলিতে ৫টি লেনদেন হবে ফ্রি। এই সীমা পেরিয়ে গেলে আর্থিক লেনদেন পিছু ২০ টাকা চার্জ বসবে, আর্থিক বাদে অন্য লেনদেনের বেলায় চার্জ কাটবে সাড়ে ৮ টাকা করে। সিলভার, গোল্ড, ম্যাগনাম, টাইটানিয়াম, ওয়েলথ ভ্যারিয়েশন অ্যাকাউন্ট হোল্ডার-সবাই এর  আওতায় আসবেন।

১ আগস্ট থেকে সপ্তাহের সব দিনই ন্যাশনাল অটোমেটেড ক্লিয়ারিং হাউস (ন্যাচ) পরিষেবা পাওয়া যাবে। এই পরিষেবার মাধ্যমে ডিভিডেন্ড, সুদ, বেতন, পেনশন সব কিছু পাওয়া যাবে। এটি পরিচালনা  করে ন্যাশনাল পেমেন্টস কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া। বিদ্যুত, গ্যাস, টেলিফোন বিল, লোনের কিস্তি শোধ, মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ, বিমার প্রিমিয়াম-সবই এই পরিষেবার মাধ্যমে দেওয়া যাবে।  বর্তমান এই ধরনের যাবতীয় পরিষেবা শুধুমাত্র ব্যাঙ্কের  কাজের দিনগুলিতেই মেলে। এবার সপ্তাহ শেষে, ছুটির দিনগুলিতেও মিলবে।

১ আগস্ট থেকে বাড়ির দরজায় পরিষেবা নিতে গেলে চার্জ দিতে হবে বলে জানিয়েছে দি ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্ক বা আইপিপিবি। নতুন নিয়মে এমন প্রতিটি পরিষেবার জন্য কাস্টমারদের ২০ টাকা, তার সঙ্গে জিএসটিও দিতে হবে।  দুয়ারে যে পরিষেবার জন্য আবেদন করা হয়েছে, সেজন্য আইপিপিবির লোকজন কাস্টমারের বাড়ি হাজির হলে ট্রানজাকশনের কোনও ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দেওয়া হয়নি। তবে একজন খদ্দের একাধিক  পরিষেবার আবেদন করলে নো চার্জ শর্ত জুড়বে।  অনেক লোক বাড়ির দরজায় পরিষেবার আবেদন করলে তা ডিএসবি ডেলিভারি বলে ধরা হবে এবং চার্জ দিতে হবে।

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More