লখিমপুর: কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে বরখাস্তের দাবি, সরকারকে বলবেন, জানিয়েছেন কোবিন্দ, দাবি রাহুলদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লখিমপুর খেরির (lakhimpur violence) হিংসা, অশান্তির ব্যাপারে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের (president Kovimnd) কাছে রাহুল গাঁধীর (rahul gandhi) নেতৃত্বে কংগ্রেস প্রতিনিধিদল। রাষ্ট্রপতির কাছে লখিমপুরে কেন্দ্রের কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখানো কৃষকদের গাড়িচাপা দিয়ে মেরে ফেলায় অভিযুক্ত ও গ্রেফতার হয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে, একথা উল্লেখ করে মন্ত্রীকে বরখাস্তের (sacking) (dismissal) দাবি করেছেন প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। দলে রাহুল বাদে ছিলেন প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরা, অধীর রঞ্জন চৌধুরী, এ কে অ্যান্টনি, মল্লিকার্জুন খাড়্গে, গুলাম নবি আজাদ, কে সি বেনুগোপাল।

গত ৩ অক্টোবর উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরে চাষিদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগে সম্প্রতি গ্রেফতার হয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্র। চার কৃষক সহ ৮ জন বিরাট হিংসার বলি হন সেদিন। কংগ্রেসের দাবি, অজয় মিশ্রের অপসারণ ও গোটা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ, নিরপেক্ষ তদন্ত হোক। এটা নিহত চাষিদের পরিবারগুলিরও দাবি, রাষ্ট্রপতিকে বলেছে কংগ্রেসের দলটি। রাষ্ট্রপতি এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে কথা বলবেন বলে তাঁদের জানিয়েছেন, দাবি কংগ্রেসের।

প্রিয়ঙ্কা সাংবাদিকদের বলেন, নিহত কৃষক পরিবারগুলির সদস্যদের বিশ্বাস, অভিযুক্তের মন্ত্রী পিতা ক্ষমতায় থাকলে কোনও ন্যয়বিচার মিলবে না। এটা উত্তরপ্রদেশের তথা গোটা দেশের শুভ চিন্তাভাবনা করা মানুষেরও অভিমত। রাষ্ট্রপতি সরকারের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলেছেন।

নিহত চাষিদের শেষ শ্রদ্ধা অনুষ্ঠানে গতকাল ছিলেন প্রিয়ঙ্কা।

দুজন কর্মরত সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিকে দিয়ে লখিমপুরের ঘটনার তদন্ত ও হত্যায় দোষীদের সাজা চাই, বলেন রাহুল। তিনি জানান, রাষ্ট্রপতিকে বলেছি, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ইস্তফা  দেওয়া উচিত যাতে লখিমপুরের ঘটনার নিরাপেক্ষ তদন্ত হতে পারে কেননা তাঁর ছেলেই মামলায় অভিযুক্ত।

 

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More