এই দুই রাঙা আলুতেই ডায়াবেটিস-ক্যানসারের ঝুঁকি কমবে, ভারতীয় বিজ্ঞানীর অসামান্য আবিষ্কার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ছিপছিপে চেহারার লোভ আর ডায়াবেটিসের চোখ রাঙানি—মূলত এই দুই কারণেই বাঙালির পাত থেকে আলু বিদায় নিয়েছে। তরিতরকারি থেকে শুরু করে মাছ মাংসের রসালো রান্নাতেও আলু বাদ। রক্তে শর্করার বাড়াবাড়ি, ওবেসিটিতে নাকাচোবানি, সব সামলে শেষ পর্যন্ত আলুকে বাতিলের খাতাতেই ফেলা হচ্ছে। আর রাঙা আলু? খাদ্য রসিকদের পাতে এই আনাজটি একপ্রকার ব্রাত্য হলেও, বিজ্ঞানীরা বলছেন রাঙা আলুর পুষ্টিগুণকে হেলাফেলা করা কোনও মতেই উচিত হবে না। আর সেই রাঙা আলু যদি হয় বৈজ্ঞানিক উপায় তৈরি তাহলে তো কথাই নেই। বিদেশে এমন মডিফায়েড রাঙা আলু তৈরি হলেও দেশে সেভাবে হয়নি। এই কাজই করে দেখিয়েছেন ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব এগ্রিকালচার রিসার্চ (আইসিএআর)-এর প্রিন্সিপাল সায়েন্টিস্ট ডক্টর নেদুনচেঝিয়ান মনিয়াম।

এত রকম ডায়েট চার্ট, হরেক শাকসব্জি, নামী দামি ওষুধ থাকতে রাঙা আলু? এই প্রশ্ন মনে জাগতেই পারে। কারণ কুলীন সব্জিদের তালিকায় রাঙা আলুকে সেভাবে ঠাঁই দেওয়া হয়নি। কিন্তু আইসিএআরের মুখ্য গবেষক বলছেন, রাঙা আলুর এমন দুই ভ্যারিয়ান্ট তৈরি করা হয়েছে যাদের মধ্যে সবরকম পুষ্টি উপাদান আছে। এই দুই ভ্যারিয়ান্ট রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখবে, ক্যানসারের মতো মারণ রোগের ঝুঁকি কমাবে। আর ওবেসিটির রোগীরা নিশ্চিন্তে এই আলু খেতেই পারেন। ওজন বাড়বে না, শরীরে ক্যালরির চাহিদাও মিটবে।

৯ বছরের গবেষণায় সাফল্য

ভুবণেশ্বরের ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব এগ্রিকালচার রিসার্চের সেন্টার টিউবার ক্রপস রিসার্চ ইনস্টিটিউটে রাঙা আলু Scientists Grow Purple & Orange Sweet Potatoes, Can Help Reduce Diabetes, Cancer  Risksফলিয়েছেন গবেষক ডক্টর নেদুনচেঝিয়ান মনিয়াম। বলেছেন, ওড়িশায় ৪০ হাজার হেক্টর জমিতে বৈজ্ঞানিক উপায় তৈরি রাঙা আলুর এই দুই প্রজাতির চাষ হচ্ছে। সরকারি উদ্যোগে বাণিজ্যিক ফলনও হবে। বিদেশে রফতানি করার কাজও শুরু হয়েছে। আমেরিকা-মেক্সিকোতে ইতিমধ্যেই ভারতীয় বিজ্ঞানীর তৈরি দুই প্রজাতির রাঙা আলু বেশ জনপ্রিয় হয়েছে।

গবেষক বলছেন, বাজার থেকে যে রাঙা আলু কিনে আনি আমরা, এই দুটি তার থেকে আলাদা। পুষ্টি গুণ অনেক বেশি। বেগুনী রঙের ভ্যারিয়ান্টের নাম কৃষ্ণা এবং কমলা ভ্যারিয়ান্টের নাম সোনা। ২০০৭ সাল থেকেই বিশেষ প্রজাতির এই দুই রাঙা আলু তৈরির জন্য গবেষণা করছিলেন ডক্টর মনিয়াম। বলেছেন, আমাদের দেশের মাটিতে এমন ধরনের ফসলের ফলন খুব একটা হয় না। সে জন্য বিশেষ রকম মাটি দরকার। শুরুটা ইনস্টিটিউটের ৫০ একর জমিতেই হয়েছিল। প্রথম প্রথম ফসলের ফলন হয়নি। তার জন্য বিশেষ রকম মাটি বানিয়েছিলেন গবেষক। ২০১৬ সালে প্রথম ফলন হয়। ল্যাবরেটরিতে এর ক্লিনিকাল টেস্ট করে সাফল্যও মেলে। কৃষ্ণা ও সোনার পুষ্টিগুণ দেখে পরে সরকারি উদ্যোগে এর বাণিজ্যিক ফলনের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এখন তামিলনাড়ু, কেরল সহ কয়েকটি রাজ্যে এর চাষ শুরু হয়েছে।

Central Tuber Crops Research Institute - Wikipedia

কী বিশেষত্ব আছে এই রাঙা আলুর

প্রথমত এই গ্লাইসেমিক ইনডেক্স খুব কম। সাধারণ আলুর গ্লাইসেমিক ইনডেক্স বেশি হওয়ায় ডায়াবেটিস বা সুগারের রোগীদের খেতে বারণ করা হয়। গ্লাইসেমিক ইনডেক্স হল কার্বোহাইড্রেটের সূচক। যত কম গ্লাইসেমিক রেটের খাবার খাওয়া হবে ততই শরীরের জন্য ভাল। যেমন ১০০ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ালে তা যত দ্রুত রক্তে ছড়ায়, ১০০ গ্রাম আটার রুটিতে ততটা নয়। তাই আহারের বহর কমানোর পাশাপাশি সঠিক খাবার নির্বাচন করাটাও জরুরি। কার্বোবাইড্রেট শরীরের জন্য খুব প্রয়োজনীয় হলেও পরিমাণটা মাথায় রাখতে হবে। তাই ‘স্মার্ট কার্বোহাইড্রেট’ যুক্ত খাবার বেছে নিতে হবে যা থেকে প্রয়োজনীয় শক্তি আসবে, অথচ ক্ষতি হবে না। একে বলে লো-গ্লাইসেমিক খাবার, যা এই দুই রাঙা আলুর ভ্যারিয়ান্টে আছে।

Scientists Grow Purple & Orange Sweet Potatoes, Can Help Reduce Diabetes, Cancer  Risks

দ্বিতীয়ত, প্রচুর পরিমাণে অ্যান্থোসায়ানিন ও কেরাটিন আছে। এই দুই জৈব যৌগই পুষ্টি ও অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট হিসেবে কাজ করে। বেগুনী রাঙা আলুতে প্রতি ১০০ গ্রামে ৯০-১০০ মিলিগ্রাম অ্যান্থোসায়ানিন আছে। এই অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রমে রাখে ও অ্যান্টি-ক্যানসার হিসেবে কাজ করে। কমলা রাঙা আলুর প্রতি ১০০ গ্রামে আছে ১৪ মিলিগ্রাম বিটা-ক্যারোটিন। ভিটামিন এ সমৃদ্ধ এই রাঙা আলু অপুষ্টি কমাতে বিশেষ ভূমিকা নেবে বলে জানিয়েছেন গবেষক। এছাড়াও প্রয়োজনীয় খনিজ ও ফাইটোনিউট্রিয়েন্টের মতো দরকারি উপাদান মজুত আছে এই দুই ভ্যারিয়ান্টে। মেটাবলিজম বাড়ানোর পাশাপাশি শরীরের টক্সিনকে দূর করতেও বিশেষ কার্যকরী। শরীরের অতিরিক্ত জল শোষণ করে নিতে পারে, শরীরের পিএইচ ফ্যাক্টরে ভারসাম্য রাখতেও সাহায্য করবে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More